www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

May 27, 2024 5:57 am
কলকাতা হাইকোর্ট

খবরে আমরাঃ স্কুল সার্ভিস কমিশনের বিরুদ্ধে তিনি বারবার সিবিআই তদন্ত দিলেও কীভাবে ডিভিশন বেঞ্চ স্থগিত করতে পারে, সেই প্রশ্ন তুলেছিলেন বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। তিনি মামলার নথি-সহ সুপ্রিম কোর্টের প্রধান বিচারপতি ও কলকাতা হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতিকে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন। সোমবার সেই বিতর্কের জেরেই দিনভর এক ডিভিশন বেঞ্চ থেকে অন্য ডিভিশন বেঞ্চে পাক খেল এসএসসির আরও চার উপদেষ্টার মামলাগুলি। সরাসরি ডিভিশন বেঞ্চের দুই বিচারপতির দিকেই আঙুল তোলায় কোনও ডিভিশন বেঞ্চ তা শুনে রাজী হল না। প্রতিবারই মামলাগুলি ফেরত গেল প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তবের কাছে। এদিন সকালেই ফের এসএসসির মামলাগুলির শুনানির জন্য গ্রহণ করে বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায় প্রাক্তন উপদেষ্টা এস পি সিনহার পর বাকী চারজনকে অবিলম্বে জেরা করতে সিবিআইকে নির্দেশ দেন। একইসঙ্গে বিঝাননগর পুলিশ কমিশনারেটের দুই আধিকারীককে নির্দেশ দেন তাঁরা যেন ওই চারজনকে নিয়ে গিয়ে সিবিআইয়ের সামনে হাজির করে। এরপরেই ওই চারজন কমিটির সদস্য আবেদনটির উপর শুনানির জন্য যান বিচারপতি হরিশ টন্ডন ও বিচারপতি রবীন্দ্রনাথ সামন্তের ডিভিশন বেঞ্চে। কিন্তু বিচারপতি হরিশ টন্ডন মামলাগুলি থেকে অব্যাহতি নিয়ে জানিয়ে দেন তিনি আর শুনবেন না। আবেদনকারীরা নতুন ডিভিশন বেঞ্চ গঠন ও শুনানির জন্য প্রধান বিচারপতির এজলাসে গিয়ে তাঁর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। অ্যাডভোকেট জেনারেল জানান, কমিটির সদস্যদের মামলায় নথিভুক্ত না করেই সিবিআই জেরার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিচারপতি হরিশ টন্ডন অব্যাহতি নিয়েছেন। দ্রুত ডিভিশন বেঞ্চ গঠন প্রয়োজন। প্রধান বিচারপতি দুপুরে তা পাঠিয়ে দেন বিচারপতি সি সিভাগ্লাানাম ও বিচারপতি হিরন্ময় ভট্টাচার্যের ডিভিশন বেঞ্চে। আবেদনকারীরা সেই ডিভিশন বেঞ্চে গিয়ে ফের শুনানির আবেদন করে। এবারও এই ডিভিশন বেঞ্চ শুনানি তেকে অব্যাহতি নেয। পের মামলাগুলি ফেরত আসে প্রধান বিচারপতির কাছে। তিনি তা আবার পাঠিয়ে দেন বিচারপতি সৌমেন সেন ও বিচারপতি অজয় মুখোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চে। কিন্তু এই ডিভিশন বেঞ্চও শুনানি করতে রাজী হয়নি। তারাও অব্যাহতি নেয। একপ্রকার এক ডিভিশন বেঞ্চ থেকে অপর ডিভিশন বেঞ্চে পাক খেয়ে মামলাগুলি ফের ফেরত আসে প্রধান বিচারপতির কাছে। এদিন বিকাল সাড়ে চারটা নাগাদ ফের মামলাকারীরা প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তব ও বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজের ডিভিশন বেঞ্চে গিয়ে মামলাগুলির শুনানির আবেদন করে। প্রধান বিচারপতি জানান, মামলাগুলির গুরুত্ব কী যে শুধুমাত্র সিবিআইয়ের সামনে হাজির হতে বলেছে বলেই। রাজ্যের অ্যাডভোকেট জেনারেল জানান, নির্দেশ হয়েছে নিয়ম বহির্ভূতভাবেই। সিবিআই তদন্তে স্থগিতাদেশ থাকার মাঝেই সিঙ্গল বেঞ্চ এমন নির্দেশ দিচ্ছে। প্রধান বিচারপতির ডিভিশন বেঞ্চ জানায়, মামলার নথি তাদের কাছে নেই। সেগুলি আসুক তারপর দেখা যাবে।

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *