www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

April 15, 2024 11:24 pm

কেন্দ্রের বা বিজেপির বিরুদ্ধে নিজেদের কড়া অবস্থান বাজায় রাখল তৃণমূল কংগ্রেস। বিশেষ করে উপরাষ্ট্রপতি পদে যখন দগদীপ ধনখড় প্রার্থী। রাজ্যপাল থাকার সময়ে এক ইঞ্চি মাটি রাজ্যপালকে ছাড়েনি তৃণমূল।

কেন্দ্রের বা বিজেপির বিরুদ্ধে নিজেদের কড়া অবস্থান বাজায় রাখল তৃণমূল কংগ্রেস। বিশেষ করে উপরাষ্ট্রপতি পদে যখন দগদীপ ধনখড় প্রার্থী। রাজ্যপাল থাকার সময়ে এক ইঞ্চি মাটি রাজ্যপালকে ছাড়েনি তৃণমূল। রাজ্যপালের প্রতিটি পদক্ষেপ যখনই দলের বিরুদ্ধে গিয়েছে, সরাসরি তার প্রত্যাঘাত করেছে তারা। সেখানে প্রত্যাশা মতো উপ রাষ্ট্রপতি পদে যে সমর্থন করা হচ্ছে না বোঝাই গিযেছি। আনুষ্ঠানিক ঘোষণা করা হল মাত্র। উপ রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে (Vice President Election 2022) ভোটদান থেকে বিরত থাকার সিদ্ধান্ত নিল তৃণমূল কংগ্রেস (Trinamool Congress)। ২১ জুলাইয়ের (21 July TMC) মহাসমাবেশ শেষে এই নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে বৈঠকে বসেছিল দল। এরপরই বিকেলে সাংবাদিক বৈঠক করে দলের সিদ্ধান্তের কথা ঘোষণা করলেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)।

দলের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড বলেন, “কোনওভাবেই আমরা NDA প্রার্থীকে সমর্থন করতে পারি না। বাংলায় রাজ্যপাল থাকাকালীন জগদীপ ধনখড়ের (Jagdeep Dhankhar) রাজনৈতিক ভূমিকা আমরা দেখেছি। কী ভাবে একটি দলের হয়ে তিনি কথা বলতেন, কী ভাবে বাংলার মানুষকে ধাপে ধাপে তিনি অসম্মান করেছেন। তাই তাঁকে সমর্থন সম্ভব নয়।”

একইসঙ্গে তিনি বলেন, “শেষ মুহূর্তে মার্গারেট আলভার নাম বিরোধীপক্ষের প্রার্থী হিসেবে ঘোষণা করা হয়। যে দলের ৩৫ জন সাংসদ রয়েছে, সেই দলের সঙ্গে সঠিকভাবে আলোচনা না করেই সিদ্ধান্ত হয়েছে।” দলের প্রায় ৮৫ শতাংশ সাংসদ এদিনের বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন এবং তাঁরা সকলেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিজেদের মতামত প্রকাশ করেছেন বলে এদিন জানান তৃণমূলের ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ। তারপরই দলের তরফে সর্বসম্মতিক্রমে উপরাষ্ট্রপতি নির্বাচনের প্রক্রিয়ায় অংশগ্রহণ না করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আলোচনা না করেই বিরোধীপক্ষের উপরাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী ঘোষণা করা হয়েছে বলেও জানান অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “যেভাবে বিরোধী প্রার্থী ঘোষণা করা হয়েছে, তার প্রতিবাদ জানাচ্ছি।” একইসঙ্গে তাঁর সংযোজন, “মার্গারেট আলভার সঙ্গে ভালো সম্পর্ক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। কিন্তু, সম্পর্কের ভিত্তিতে তো নির্বাচন প্রকিয়ায় অংশ নেওয়া যায় না। আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি পালটাতে হবে। বিরোধী পক্ষের সমস্ত দলকে আহ্বান জানাচ্ছি।”

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *