www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

April 16, 2024 12:04 am
mamata at sahid diwas

বছরের পর বছর ২১ জুলাইয়ে কলকাতায় এসেছেন তাঁরা। কিন্তু, এবারের একুশে জুলাই তাঁদের কাছে আলাদা। মঞ্চে বক্তব্য রাখছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্যাকেটজাত দ্রব্যে GST বসিয়েছে কেন্দ্রে। এরই প্রতিবাদে সরব হয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। “মুড়িতে কেন GST?”

ফের শিরোনামে বর্ধমান। তাও আবার তৃণমূল কংগ্রেসের শহীদ মঞ্চে। সুপ্রিমো মমতা ব্যানার্জীর মুড়িতে জিএসটির প্রতিবাদে তাঁর হাতে উঠল এই অধুনা বর্ধমানের মুড়ি। অবাক হবেন না।

বছরের পর বছর ২১ জুলাইয়ে কলকাতায় এসেছেন তাঁরা। কিন্তু, এবারের একুশে জুলাই তাঁদের কাছে আলাদা। মঞ্চে বক্তব্য রাখছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্যাকেটজাত দ্রব্যে GST বসিয়েছে কেন্দ্রে। এরই প্রতিবাদে সরব হয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। “মুড়িতে কেন GST?” এই প্রশ্ন তুলে প্রতিবাদ জানানোর জন্য তিনি মঞ্চের সামনে উপস্থিত সমর্থকের থেকে মুড়ি চেয়ে নেন। কার হাত থেকে মুড়ি চাইলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়?

জানা গিয়েছে, পূর্ব বর্ধমানের আউসগ্রাম থেকে এসেছিলেন দেবাশিস মুখোপাধ্যায় এবং নিরঞ্জন পাল। তাঁরা নিজেরা ‘টিফিন’ করার জন্য এনেছিলেন এই মুড়ি। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মঞ্চে দাঁড়িয়ে বলেছিলেন, “কার হাতে মুড়ি রয়েছে? একটু দাও।” তখন তাঁরাই জলযোগের জন্য আনা মুড়ি এগিয়ে দিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দিকে। দলনেত্রী এই নিয়ে প্রতিবাদ জানিয়ে তা আবার ফেরত দিয়ে দিয়েছিলেন দেবাশিস এবং নিরঞ্জনের হাতে। তাঁদের গ্রাম থেকে আনা মুড়িই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় BJP- র বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে ব্যবহার করছেন, তা এখনও বিশ্বাস করতে পারছেন না এই দুই তৃণমূলের সমর্থক।

দেবাশিস বলেন, “আমরা যবে থেকে তৃণমূলের সঙ্গে যুক্ত হয়েছি তবে থেকে ২১ জুলাই শহিদ স্মরণে কলকাতায় আসছি। গ্রাম থেকে মুড়ি নিয়ে এসেছিলাম টিফিন করব বলে। সেই মুড়ি দিদির হাতের ছোঁয়া পেয়েছে। এই মুড়ি আমরা প্রসাদ হিসেবে ফিরে গিয়ে গ্রহণ করব। কিছুটা মুড়ি যত্ন সহকারে পার্টি অফিসে রেখে দেব।” অন্যদিকে, নিরঞ্জন বলেন, “আমরা আপ্লুত। এই স্মৃতি নিয়েই আমরা গ্রামে ফিরে যাব।”

এদিন মুড়ি নিয়ে প্রতিবাদ করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি বলেন, “একবাটি মুড়ি কিনে খাব তাতেও GST। নকুল দানায় কত GST, কাটা ঘায়ে কত GST! মানুষ খাবে কী! আমাদের মুড়ি ফিরিয়ে দাও, নইলে BJP বিদেয় নাও।” তিনি আরও বলেন, “মৃতদেহের খাট কিনতে গেলে কত GST! রোগী বিছানায় ভর্তি হলেও GST। বেড ভাড়ায় GST। মরে গেলে কত GST!”

পাশাপাশি দেশে মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে কেন্দ্রকে তোপ দেগে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “গ্যাস বাড়ানোর সরকার আর নেই দরকার। মুড়িতে জিএসটি বসানোর সরকার আর নেই দরকার।মুড়িতে GST বসানোর সরকার আর নেই দরকার। অগ্নিপথে না হেঁটে সেনায় লোক নিন।”

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *