www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

February 22, 2024 12:59 pm

জামতাড়ার (Jamtara Gang) আদলে KYC আপডেট করার নাম করে জালিয়াতি। দক্ষিণ দিনাজপুর থেকে জালিয়াতি চক্রের দুই পান্ডাকে গ্রেপ্তার করলেন লালবাজারের গোয়েন্দারা। পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতদের নাম মণিরুল জামাল মোল্লা ও আনোয়ার মোল্লা। দু’জনের বিরুদ্ধে ১৩ লক্ষ ৩৯ হাজার টাকার ব্যাংক জালিয়াতির অভিযোগ উঠেছে।

কিছুদিন আগে দক্ষিণ কলকাতার (South Kolkata) সার্ভে পার্ক এলাকার এক প্রবীণের কাছে ব্যাংক আধিকারিক পরিচয় দিয়ে এক ব্যক্তি ফোন করে বলে, তাঁর KYC আপডেট করতে হবে। তা না হলে বন্ধ হয়ে যাবে অ্যাকাউন্টটি। এরপরই ব্যাংকের ATM কার্ডের নম্বর ও কিছু তথ্য জানতে চাওয়া হয়। অভিযুক্তের কথায় ওই প্রবীণ ভয় পেয়ে গিয়ে তাকে ওই তথ্যগুলি জানিয়ে দেন। বলে দেন ওটিপি। এরপরই ওয়ালেটের মাধ্যমে তাঁর ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে কয়েক দফায় মোট ১৩ লক্ষ ৩৯ হাজার টাকা উধাও করে দেয় জালিয়াত।

প্রতারণার শিকার হয়েছেন বুঝতে পেরেই সার্ভে পার্ক থানায় অভিযোগ জানান বৃদ্ধ। সেই ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেন লালবাজারের গোয়েন্দা বিভাগের ব্যাংক জালিয়াতি দমন শাখার আধিকারিকরা। তদন্ত করে গোয়েন্দারা জানতে পারেন, দক্ষিণ দিনাজপুরের মণিরুল জামাল মোল্লার নামে একটি ব্যাংক অ্যাকাউন্টে জমা পড়েছে এই জালিয়াতির টাকা। সেই সূত্র ধরে তদন্ত শুরু করে দক্ষিণ দিনাজপুরের বালুরঘাটে হানা দেন গোয়েন্দারা। ওই জেলার বিভিন্ন জায়গায় তল্লাশি চালিয়ে প্রথমে মণিরুলকে গোয়েন্দারা গ্রেপ্তার করেন।

মণিরুলের অ্যাকাউন্ট থেকে জালিয়াতির তিন লক্ষ টাকা উদ্ধার হয়। ধৃতকে জেরা করে গোয়েন্দা পুলিশ তার সঙ্গী আনোয়ার মোল্লার সন্ধান পায়। জানা গিয়েছে, আনোয়ার মোল্লা মণিরুলের ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে এবং ওই জেলার বালুরঘাট, গঙ্গারামপুর-সহ বেশ কয়েক জায়গায় এটিএম থেকে টাকা তুলেছে। গোয়েন্দা পুলিশ সেই এটিএমের CCTV ফুটেজ থেকে সেই ব্যাপারে প্রমাণও পেয়েছে।

শনিবার দু’জনকে গ্রেপ্তার করার পর রবিবার কলকাতায় নিয়ে আসা হয়। ধৃতদের জেরা করে লালবাজারের গোয়েন্দারা জেনেছেন, জামতাড়ার জালিয়াতদের আদলেই এই জালিয়াত চক্রটি ফোন করে নিজেদের ব্যাংক আধিকারিক পরিচয় দিয়ে জালিয়াতি শুরু করে। গোয়েন্দাদের ধারণা, এই চক্রে ধৃতরা ছাড়াও আরও কয়েকজন রয়েছে। তাদের সন্ধান পেতে তল্লাশি চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *