www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

February 24, 2024 11:52 pm
siv sravan month

২০২৩ সালও তার ব্যতিক্রম নয়। তবে নতুন বছরে (New Year 2023) বেশ কিছু পরিবর্তন দেখা যাচ্ছে! জ্যোতিষীদের বক্তব্য— ২০২৩ সালে মল মাসের জন্য শ্রাবণ এর ১ নয় বরং ২ মাস ব্যাপী স্থায়ী হবে। হিন্দু পঞ্চাঙ্গ অনুসারে, ২০২৩ সাল ১২ নয় বরং ১৩ হবে মাস বিশিষ্ট। ফলে নতুন বছরে শ্রাবণ মাস বিরাজ করবে দুই মাস জুড়ে।

আর কয়েক মাসের অপেক্ষা। নতুন বাংলা বছর এবার দিকে চলেছে নতুন চমক। এবার নতুন বাংলা বছর ১৩ মাসের। এক মাস অতিরিক্ত। আর এই বাড়তি মাসকে বলা হয় মল মাস। হিন্দু ক্যালেন্ডার মতে এবার শ্রাবণ মাস পড়েছে দু মাস জুড়ে।

শ্রাবণমাস  (Shravana Month) মানেই স্বয়ং মহাদেব বা শিবের আরাধনার মাস। মহাদেবের (lord Shiva) ভক্তকুল দলে দলে কাঁধে বাঁক নিয়ে ছুটে যান মহাদেবের মাথায় জল ঢালতে। ২০২৩ সালও তার ব্যতিক্রম নয়। তবে নতুন বছরে (New Year 2023) বেশ কিছু পরিবর্তন দেখা যাচ্ছে! জ্যোতিষীদের বক্তব্য— ২০২৩ সালে মল মাসের জন্য শ্রাবণ এর ১ নয় বরং ২ মাস ব্যাপী স্থায়ী হবে। হিন্দু পঞ্চাঙ্গ অনুসারে, ২০২৩ সাল ১২ নয় বরং ১৩ হবে মাস বিশিষ্ট। ফলে নতুন বছরে শ্রাবণ মাস বিরাজ করবে দুই মাস জুড়ে।

জ্যোতিষীরা আরও বলছেন, শিবভক্তদের উপর এবার আর ১ মাস নয়, বরং দুই মাস ধরে মহাদেবের কৃপা বর্ষিত হতে চলেছে। বাংলা ক্যালেন্ডারে এই বাড়তি মাসকে মল মাস বলা হয়। তাঁরা বলছেন, দীর্ঘ ১৯ বছর পরে তৈরি হচ্ছে এমন দুর্লভ যোগ।

মলমাস কী?

হিন্দু ক্যালেন্ডার অনুযায়ী প্রতি তিন বছরে একটি অতিরিক্ত মাসের প্রকট হয়। এই অধিক মাসটিকে মলমাস বা পুরুষোত্তম মাস বলা হয়।

চন্দ্র পঞ্জিকা অনুসারে এক বছরে থাকে ১২ মাস যার মোট দিন সংখ্যা ৩৫৫ দিন। আবার সৌর পঞ্জিকা অনুসারে বছরে দিনের সংখ্যা ৩৬৫। অর্থাৎ চন্দ্র পঞ্জিকা ও সৌর পঞ্জিকার মধ্যে থাকে ১০ দিনের পার্থক্য। হিন্দু ধর্মের সকল সনাতন ধর্মীয় অনুষ্ঠান হয়। এই কারণে সৌর ও চন্দ্র বৎসরের মেলবন্ধনের জন্য তিন বছর অন্তর যে ৩০ দিন অধিক পাওয়া যায় তাই হল পুরু‌ষোত্তম মাস বা অধিক মাস কিংবা মল মাস।

এছাড়া, সূর্য প্রতি মাসে রাশি পরিবর্তন করে। সূর্য যখন একটি রাশি থেকে অন্য রাশিতে প্রবেশ করে, তখন তাকে সংক্রান্তি বলে। এই হিসেবে যে মাসে সংক্রান্তি নেই, সেই দিনটিকে মলমাস বলে।

২০২৩-এ মল মাস

হিন্দু পঞ্চাঙ্গ অনুসারে ২০২৩ সালে মলমাস শুরু হবে ১৮ জুলাই থেকে। চলবে ১৬ আগস্ট পর্যন্ত।

মল মাসের গুরুত্ব

পুরাণ অনুসারে, অধিমাসে দু’টি অমাবস্যা থাকায় কোনও শুভকাজ হয় না। তবে কি এই মাস চরম অশুভ? অধিমাস বা অধিক মাস এই দুঃখ নিয়ে শ্রীবিষ্ণুর কাছে গেলেন। শ্রীবিষ্ণু অধিমাসের দুঃখ দেখে বললেন, আমার অপরনাম পুরুষোত্তম। আজ থেকে অধিমাসও জগৎ সংসারে পুরুষোত্তম মাস নামে পরিচিত হবে। এই মাস সকল মাসের শ্রেষ্ঠ হবে। অন্য সকল মাসে সকাম সাধনা হয়। এই মাসে হবে নিষ্কাম সাধনা। ফলে যে ব্যক্তি এই মাসে নিষ্কাম সাধনা নিয়ে ঈশ্বরের পূজা করবে তার কর্মফল মুক্ত হবে ঈশ্বর লাভ করবে। তাই এই মাসে কোনও অসৎ কর্ম না করে ঈশ্বরের সেবায় নিযুক্ত থাকলে পরম করুণাময়ের কৃপা মেলে।

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *