www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

February 22, 2024 1:18 pm

বিধানসভায় রাজ্যপালের ভাষণ শুরুর আগেই তীব্র উত্তেজনা। পুরভোটে সন্ত্রাসের অভিযোগে বিধানসভায় বিক্ষোভে শামিল হল বিজেপি। যার জেরে সময়মতো ভাষণ শুরু করতে পারলেন না রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় (Jagdeep Dhankhar)। আদৌ তিনি ভাষণ দিতে পারবেন কি না, তা নিয়ে অনিশ্চয়তা তৈরি হয়েছে। অধিবেশন শুরুর আগেই এই পরিস্থিতি নজিরবিহীন।

দীর্ঘ জটিলতার মাঝে সোমবার বিধানসভায় বাজেট অধিবেশন শুরু হওয়ার কথা ছিল। প্রথা অনুযায়ী, রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের উদ্বোধনী ভাষণ দেওয়ার কথা। তার আগেই বিধানসভার ওয়েলে নেমে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন বিজেপি বিধায়করা। স্পিকারের আসনে বসে বেশ কিছুক্ষণ পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেন ধনকড়।এদিকে বিক্ষোভের মাত্রা ক্রমশ বাড়তে থাকে। পুরসভা নির্বাচনে অশান্তির অভিযোগ তুলে ক্রমশ সুর চড়াতে থাকে বিজেপি। নেতৃত্বে ছিলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। এই বিক্ষোভের জেরে বিধানসভা ছেড়ে বেরিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেন জগদীপ ধনকড়। 

জানা গিয়েছে, জগদীপ ধনকড়ের পথ আটকান অরূপ বিশ্বাস, ববি হাকিম। পরবর্তীতে মুখ্যমন্ত্রীর অনুরোধে ফের আসনে ফেরেন রাজ্যপাল। বিক্ষোভ থামাতে এরপর বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে ডাকেন রাজ্যপাল। সমস্যা জানতে চেয়েছেন বলেই খবর। এদিকে বিজেপির লাগাতার স্লোগানের পালটা দিতে থাকে তৃণমূলের একাংশ। সব মিলিয়ে বিশৃঙ্খল পরিস্থিতি তৈরি হয়। কতক্ষণে সমাধান সূত্র মিলবে, তা অজানা। যদিও বিক্ষোভের মাঝেই স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় দাবি করেছেন, রাজ্যপাল ভাষণ পেশ করেছেন। 

এদিকে রবিবার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়কে রাজভবনে তলব করেছিলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। সেখানে রাজ্যপাল তাঁর ভাষণ সরাসরি সম্প্রচারের দাবি জানিয়েছিলেন। সে বিষয়ে রবিবার স্পিকার কোনও সিদ্ধান্ত জানাননি। শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী, ধনকড়ের ভাষণ সরাসরি সম্প্রচার হবে না।

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *