www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

February 25, 2024 12:52 am

খবরে আমরাঃ দোল উৎসবে মাতোয়ারা গোটা দেশ। রঙের খেলায় মেতেছেন রাজনীতিবিদ, অভিনয় জগতের কলাকুশলী থেকে খেলার দুনিয়ার তারকারাও। শচীন তেণ্ডুলকর, বিরাট কোহলিরা সোশ্যাল মিডিয়ায় দেশবাসীকে হোলির শুভেচ্ছা জানিয়েছেন। কিন্তু সেই শুভেচ্ছা জানাতে গিয়েই চূড়ান্ত ট্রোলের মুখে পড়লেন রোহিত শর্মা। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর উপর ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন কট্টর হিন্দুত্ববাদীদের একাংশ।

তা হোলিতে কী এমন পোস্ট করলেন ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা, যাতে নেটিজেনদের রোষানলে পড়তে হল তাঁকে? আসলে ইনস্টাগ্রামে একটি মজার ভিডিও পোস্ট করেন ভারতীয় দলের হিটম্যান। যেখানে দেখা যাচ্ছে, মজার ছলে নেটিজেনদের হোলির শুভেচ্ছা জানানোর চেষ্টা করছেন তিনি। পাশে রয়েছেন তাঁর স্ত্রী ঋতিকাও। তিনি আবার বলে দিচ্ছেন কীভাবে শুভেচ্ছা জানানো উচিত। ভিডিওটি নিয়ে কারও কোনও আপত্তি না থাকলেও যত রাগ গিয়ে পড়েছে তার ক্যাপশনে।

ক্যাপশনে রোহিত লিখেছেন, “সকলকে হোলির শুভেচ্ছা। সবাই আনন্দ করুন। কিন্তু আমাদের পোষ্য বন্ধুদের কথা মনে রাখবেন। তাদের গায়ে রং দেবেন না।” এই ক্যাপশন পড়েই তেলে বেগুনে জ্বলে ওঠে নেটিজেনদের একাংশ। তাঁদের দাবি, যিনি খেলার মাঝে গোমাংস খান, তাঁর মুখে সারমেয়দের নিয়ে এই দুশ্চিন্তা একেবারে বেমানান। রোহিতের থেকে এ ধরনের পরামর্শ নিতে রাজি নন তাঁরা। এ নিয়ে সরগরম হয়ে ওঠে টুইটার। অনেকেই তীব্র কটাক্ষ করে লেখেন, “বিফ, মুরগির মাংস খেয়ে আবার সারমেয়দের নিয়ে জ্ঞান দিচ্ছেন।” এমনকী, রোহিতকে ‘নির্লজ্জ’ বলতেও ছাড়েননি অনেকে। কেউ কেউ আবার রোহিতপত্নী ঋতিকাকে টেনে এনেছেন এই আলোচনায়। আর তাতেই এই মাইক্রো ব্লগিং সাইটে ট্রেন্ডিং হয়ে যায়, হ্যাশট্যাগ “ঋতিকা আপনা কুত্তা সামাল (#RitikaApnaKuttaSambhal)।”

উল্লেখ্য, রোহিত শর্মাদের খাবারের মেনু ও বিল একবার প্রকাশ্যে আসতে দেখা গিয়েছিল, তাঁরা গোমাংস খেয়েছেন। সে সময় বিষয়টি নিয়ে তীব্র উত্তেজনা ছড়ায়। এবার সারমেয়দের প্রতি রোহিত সহানুভূতি দেখাতেই সেই প্রসঙ্গ উসকে দিলেন নেটিজেনরা।

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *