www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

June 26, 2024 3:16 am

কৃষি বিজ্ঞানের বিশ্বাস 'মিয়াজাকি' আম বর্ণে ও গন্ধে অনন্য। মালদার কৃষি আধিকারিক সেফাউর রহমান নিজে একজন সফল কৃষি বিজ্ঞানী। তিনি বলেন,একটি বেসরকারি সংস্থার সাহায্যে তাঁরা জাপান থেকে এই আমের চারা মালদায় নিয়ে আসছেন। মোট ৫০টি চারাগাছ এখানে নিয়ে আসা হবে। ভারতীয় মূল্য অনুযায়ী এই এক একটি চারাগাছের দাম প্রায় ১০০০ টাকা করে পড়েছে। আপাতত কলম প্রক্রিয়ায় করা হবে এই চাষ এবং ধীরে ধীরে এর ফলন বাড়ানো হবে। যদি এই সাফল্য সেফাউর রহমান নিয়ে আসতে পারেন তাহলে মালদার আমচাষে ঘটবে এক অনন্য 'কৃষি বিপ্লব'।

মালদা পশ্চিমবঙ্গের এমন এক জেলা, যা প্রধানত আম চাষের জন্যই বিখ্যাত। কৃষি-প্রযুক্তি ব্যাপক উন্নতির ফলে এবার মালদা জেলায় উৎপন্ন হতে চলেছে বিশ্বের সর্বাধিক দুর্লভ আম ‘মিয়াজাকি’ আম (mango)।

মালদা আম গবেষণাগারের পক্ষ থেকে জানানো জানানো হয়েছে, এবার খোদ মালদাতেই (malda) নাকি চাষ করা হবে বিশ্বের এই সবচেয়ে দামী আম। এই সিদ্ধান্তই নিয়েছে বাংলার কৃষি দপ্তর। এই আমের দাম প্রতি কেজি প্রায় দুই লক্ষ টাকা।

জানা গিয়েছে যে, ইংরেজবাজার (englishbazar) ব্লক অঞ্চলেই দেখা হয়েছে বাগান এবং সেখানেই করা হবে এই আমের চাষ। এর জন্য ইতিমধ্যে জাপান থেকে মিয়াজাকি (miyajaki) আম গাছের চারা আনার কাজ শুরু হয়ে গেছে।

এই গাছের অনুকূল পরিবেশ মালদায় আছে। মাটিতে বিশেষ কিছু জৈব ও অন্যান্য সার মিশিয়ে তৈরি করা হচ্ছে ওই গাছের মাটি।

এখন পর্যন্ত যা খবর,এই ‘মিয়াজাকি’ আমি উৎপন্ন হয় একমাত্র জাপানের কয়েকটি বিশেষ গবেষণাগারে। ভারতীয় মুদ্রায় তার দাম প্রতি কেজি ২ লক্ষ টাকা।

কৃষি দপ্তর ও জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, আগামী এক সপ্তাহের মধ্যেই নিয়ে আসা হবে এই গাছের চারাগুলিকে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, মালদাতে ইতিমধ্যে শতাধিক প্রজাতির আমের চাষ হয়। সব আমগুলিই একে অন্যের থেকে স্বাদ, গন্ধ আকার সবকিছুতে আলাদা।

বাইরের দেশে এই আমের চাহিদাও প্রচুর। তবে মিয়াজাকি আমের চাষ বা এর মতো দামী আমের চাষ মালদায় এই প্রথম। কৃষিদপ্তর আশাবাদী এর সাফল্য নিয়ে।

কৃষি বিজ্ঞানের বিশ্বাস ‘মিয়াজাকি’ আম বর্ণে ও গন্ধে অনন্য। মালদার কৃষি আধিকারিক সেফাউর রহমান নিজে একজন সফল কৃষি বিজ্ঞানী। তিনি বলেন,একটি বেসরকারি সংস্থার সাহায্যে তাঁরা জাপান থেকে এই আমের চারা মালদায় নিয়ে আসছেন। মোট ৫০টি চারাগাছ এখানে নিয়ে আসা হবে। ভারতীয় মূল্য অনুযায়ী এই এক একটি চারাগাছের দাম প্রায় ১০০০ টাকা করে পড়েছে। আপাতত কলম প্রক্রিয়ায় করা হবে এই চাষ এবং ধীরে ধীরে এর ফলন বাড়ানো হবে। যদি এই সাফল্য সেফাউর রহমান নিয়ে আসতে পারেন তাহলে মালদার আমচাষে ঘটবে এক অনন্য ‘কৃষি বিপ্লব’।

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *