www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

February 28, 2024 8:57 pm

শাশ্বতী চ্যাটার্জি:: নিজের লক্ষ্য ঠিক রেখে নিষ্ঠার সঙ্গে প্রচেষ্টা জারি রাখলে স্বপ্নের গন্তব্যে পৌঁছানো যায়, সেটা করে দেখালেন কৃষ্ণনগরের দেবর্ষি মৈত্র৷ মাত্র ২৩ বছরেই গুগলে বছরে ১ কোটি ৪০ লক্ষ টাকা বেতনের চাকরির অফার পেলেন তিনি৷ স্বভাবতই দেবর্ষির সাফল্যে মেলায় খুশি পরিবার থেকে প্রতিবেশী ও শিক্ষকরা। পরিবারের দাবি, তাদের ছেলে কিছু না কিছু একটা করবে এই ধারণা আগে থেকেই ছিল।
২০১৬ সালে কৃষ্ণনগর হাই স্কুল থেকে মাধ্যমিক ও ২০১৮ সালে কৃষ্ণনগর কলেজিয়েট স্কুল থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করে দেবর্ষি। তারপর জয়েন্ট পরীক্ষা দিয়ে যাদবপুর বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রোডাকশন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে ভর্তি হন মেধাবী ছাত্র। ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের চতুর্থ বর্ষের পরীক্ষা শেষ হলেও রেজাল্ট এখনও হাতে পাননি। এরই মধ্যে অসাধ্য সাধন করে ফেলেছেন নদিয়ার কৃষ্ণনগরের ঘূর্ণি বাসিন্দা দেবর্ষি মৈত্র। তিনি গুগলের লন্ডন অফিসে সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার হিসেবে কাজের সুযোগ পেয়েছেন।
কিভাবে অসম্ভবকে সম্ভব করলেন দেবর্ষি? পরিবার সূত্রে জানা যায় দেবর্ষি জানিয়েছেন ছোট থেকেই তার ইচ্ছে ছিল গুগলের মত বড় কোম্পানিতে চাকরি করার। সেই মতো স্নাতকের চতুর্থ বর্ষের পরীক্ষা শেষে নিজেই গুগল এ যোগাযোগ করেন। তারপরেই বিভিন্ন ধাপে ধাপে পরীক্ষার মাধ্যমে সেখানে কাজের জন্য মনোনীত হয়েছেন। দিন দুয়েক আগেই গুগল এর পক্ষ থেকে মেলের মাধ্যমে জানানো হয়েছে চাকরি নিশ্চিত।
এই বঙ্গ সন্তানের বাবা বাদল মৈত্র গ্রিলের ব্যবসায়ী। মা বকুল দেবী গৃহবধূ। এছাড়াও দিদি শর্মিষ্ঠা মৈত্র স্কুল শিক্ষিকা। বাবা বাদল মৈত্র বলেন, ‘‘ছোট থেকেই ছেলে মেয়েকে স্নেহ দিয়েই মানুষ করেছি। সন্তানদের সাফল্যে বাবা-মায়ের কাছে সবচেয়ে বড় প্রাপ্তি । এর আগেও ছেলে বেশ কয়েকটি নামী আন্তর্জাতিক সংস্থায় কাজের সুযোগ পেয়েছিল। তবে ওর ইচ্ছে ছিল গুগল এ যোগ দেওয়ার । ওর স্বপ্ন পূরণ হতে চলেছে, এর চেয়ে বড় খুশির খবর আর কি বা হতে পারে৷’’

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *