www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

June 19, 2024 5:07 pm
bjp

পঞ্চায়েত ভোট দোড় গোড়ায়। ফলে এখন সেই বাইকের খোঁজ শুরু হয়েছে। দেখা যাচ্ছে ২৯৪টির মধ্যে মাত্র ২৩ টা বাইক পড়ে আছে। কিন্ত বাকিগুলি কোথায় গেল তা নিয়ে শুরু হইহই। সূত্রের খবর, খোঁজ খবরের পর জানা গিয়েছে, অধিকাংশ বাইকই বিক্রি হয়ে গিয়েছে। এমনও অভিযোগ কেউ কেউ আবার নিজের নামেই ওই বাইকগুলি করে নিয়েছে।

অবাক হওয়ার বিষয় নয়,বিষয়টা সম্পূর্ণ সত্য।

সূত্র মাধ্যমে জানা যাচ্ছে, গত বিধানসভা নির্বাচনে আগে ২৯৪ টা বিধানসভা কেন্দ্রের (West Bengal Assembly Election) কাজের সুবিধার জন্য বিজেপি কেন্দ্রীয় কমিটি ২৯৪ টা বাইক কেনার টাকা দেয়। কেনাও হয় বাইক। তবে প্রথমে উত্তর প্রদেশ থেকে অনেক বাইক আসে। কিন্তু উত্তর প্রদেশের নম্বর দেখে পুলিশ বার বার হেনস্থা করায় সেই বাইক ফেরত দেওয়া হয়। সেই ২৯৪ টা বাইকেরই এখন খোঁজ নেই বলে হইচই পড়ে গিয়েছে।

প্রশ্ন উঠেছে, এত বাইক গেল কোথায়? বিজেপির রাজ্য দফতর (BJP) এ নিয়ে রীতিমতো সরগরম। গত বিধানসভা নির্বাচনের আগে এই বাইকগুলি আনা হয়েছিল।

পঞ্চায়েত ভোট দোড় গোড়ায়। ফলে এখন সেই বাইকের খোঁজ শুরু হয়েছে। দেখা যাচ্ছে মাত্র ২৩ টা বাইক পড়ে আছে। কিন্ত বাকিগুলি কোথায় গেল তা নিয়ে শুরু হইহই। সূত্রের খবর, খোঁজ খবরের পর জানা গিয়েছে, অধিকাংশ বাইকই বিক্রি হয়ে গিয়েছে। এমনও অভিযোগ কেউ কেউ আবার নিজের নামেই ওই বাইকগুলি করে নিয়েছে।

যদিও এ নিয়ে ইতিমধ্যেই প্রশ্ন উঠেছে, দলের টাকায় কেনা বাইক এভাবে নিজের নামে করে নেওয়া যায় নাকি? এমনও সূত্রের দাবি, দলকে অন্ধকারে রেখে কেউ এই বাইক সত্যি বিক্রি করেছে কি না তার খোঁজখবরও চলছে।

নাগরিক মহল বলছে,কপালে হাত দিয়ে বলতে ইচ্ছে করে – ‘সত্য সেলুকাস কি বিচিত্র এই দেশ।’

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *