www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

June 26, 2024 3:33 am

খবরে আমরাঃ পয়গম্বর নিয়ে বিজেপির বিড়ম্বনার শেষ নেই। তারই মাঝে আদানিকে বিদ্যুৎ বরাত দেওয়া নিয়ে সরাসরি নরেন্দ্র মোদীকেই দুষল শ্রীলঙ্কা। তারা সরাসরি অভিযোগ তুলেছে মোদীর চাপেই আদানিকে বরাত দিতে বাধ্য হয়েছে তারা। এবার বিরোধীরা যে এই নিয়ে মোদীকে কাঠগড়ার তুলবেন তা বলাই বাহুল্য। ব্যাপক আর্থিক বিপর্যয়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে শ্রীলঙ্কা। দেনায় জর্জরিত প্রতিবেশী দেশের পাশে দাঁড়াতে প্রচুর সাহায্য করেছে ভারত। কিন্তু এবার দ্বীপরাষ্ট্র থেকে বিতর্কের তীর উড়ে এল ভারতের দিকে। সেদেশের বিদ্যুৎ বিভাগের প্রধান চাঞ্চল্যকর দাবি করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে। আদানি গ্রুপকে বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র তৈরি করার বরাত দিতে জোর করেছিলেন মোদি, এমনটাই দাবি করেছেন এম এম সি ফার্ডিনান্ডো।

ঠিক কী ঘটেছিল? সংসদীয় কমিটির প্রশ্নের উত্তরে ফার্ডিনান্ডো বলেন, “রাজাপক্ষে আমাকে বলেছিলেন, ৫০০ মেগাওয়াটের বায়ুশক্তি উৎপাদন কেন্দ্র তৈরির দায়িত্ব আদানি গ্রুপকে দিতে চান মোদি। বেশ জোর দিয়েই সেই প্রস্তাব করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী।” প্রসঙ্গত, আদানি গ্রুপের কর্ণধার গৌতম আদানির সঙ্গে মোদির সুসম্পর্কের কথা কারও অজানা নয়।

তবে ফার্ডিনান্ডোর এই অভিযোগ প্রকাশ্যে আসার পরেই প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন  গোতাবায়া রাজাপক্ষে। পুরো ঘটনা অস্বীকার করে তিনি জানিয়েছেন, “সিলন ইলেকট্রিসিটি বোর্ডের প্রধান যে অভিযোগ করেছেন, তা সম্পূর্ণ মিথ্যা। কোনও বিশেষ ব্যক্তি বা সংস্থাকে দায়িত্ব পাইয়ে দিইনি আমি। আশা করি, ভবিষ্যতে এই বিষয় নিয়ে সচেতনভাবে কথা বলবেন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা।”

বিতর্ক ছড়িয়ে পড়তেই নিজের মত প্রত্যাহার করেছেন ফার্ডিনান্ডো। তিনি বলেছেন, আবেগের বশে ভুল করে এই কথা বলে ফেলেছেন। তবে আদানিকে নিয়ে প্রথমবার শ্রীলঙ্কায় বিতর্ক হচ্ছে, এমন নয়। বিদ্যুতের অভাবে ধুঁকতে থাকা শ্রীলঙ্কায় বায়ুশক্তি উৎপাদন কেন্দ্রের বরাত পেয়েছে আদানি গ্রুপ। সেই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ করেছিল শ্রীলঙ্কার প্রধান বিরোধী দল সমাগি জন বালাওয়াএগা। দলের তরফে বলা হয়েছিল, বেআইনি ভাবে শ্রীলঙ্কায় ঢুকছে বিদেশি শক্তি। নরেন্দ্র মোদির ‘কুখ্যাত বন্ধু’দের প্রশ্রয় দিচ্ছেন গোতাবায়া। প্রসঙ্গত, এর আগেও কলম্বো বন্দরের উন্নয়নের কাজ করার বরাত পেয়েছিল আদানি গ্রুপ।

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *