www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

April 14, 2024 5:01 pm

খবরে আমরাঃ এপ্রিলেই বদলে যাবে রাজ্যসভার (Rajya Sabha) হিসেব-নিকেশ। ২৪ এপ্রিলের পর বাংলা থেকে বিজেপির আর কোনও প্রতিনিধিত্ব থাকবে না রাজ‌্যসভায়। ওই দিনই রাজ‌্যসভায় সদস‌্যপদের মেয়াদ শেষ হচ্ছে বাংলার দুই মনোনীত সাংসদ বিজেপির রূপা গঙ্গোপাধ্যায় (Rupa Ganguly) ও স্বপন দাশগুপ্তের (Swapan Dasgupta)। তাঁদের কেন্দ্র সরকার তথা বিজেপি মনোনীত সদস্য করে ফের রাজ্যসভায় আনবে, তেমন সম্ভাবনাও ক্ষীণ বলেই বিজেপি সূত্রে খবর। বাংলা থেকে আবার নতুন কাউকে রাজ্যসভার মনোনীত সদস্য হিসেবে বিজেপি নিয়ে আসবে কিনা, সে বিষয়টিও এখনও নিশ্চিত নয়।

রাজ্যসভার সাংসদ হিসেবে রূপা নিজের কার্যকালের প্রায় ছ’বছরের মেয়াদ সম্পূর্ণ করতে পারলেও স্বপনবাবু অবশ্য মাঝে বাংলার বিধানসভা নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ায় সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিয়েছিলেন। ভোটে পরাজিত হওয়ার পরে তাঁকে গত বছর জুনে আবার মনোনীত সদস্য হিসেবে রাজ্যসভায় নিয়ে আসে বিজেপি। নিজেদের কার্যকালের মেয়াদে এই দুই সাংসদকেই বাংলার বিভিন্ন বিষয় নিয়ে রাজ্যসভায় সরব হতে দেখা গিয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই তাঁদের মেয়াদ শেষের পরে রাজ্যসভায় বাংলার (West Bengal) বিষয়ে বিজেপির পক্ষ থেকে কথা বলার কেউ থাকবে না। প্রসঙ্গত, রাজ্যসভায় বাংলার ১৬টি আসন থাকলেও তাতে বর্তমানে বিজেপির কোনও জায়গা নেই। ১৬ আসনের মধ্যে ১৩টি আসন রয়েছে তৃণমূল কংগ্রেসের (TMC) দখলে। বাকি তিন আসনের মধ্যে দু’টি কংগ্রেসের ও একটি সিপিএমের দখলে।

বস্তুত, চলতি বছর জুড়েই পালটাতে থাকবে হিসেব-নিকেশ। সেইসঙ্গে রাজনৈতিক সমীকরণও। এপ্রিল মাসে রাজ্যসভার ১৮ জন সাংসদ অবসর গ্রহণ করতে চলেছেন। তার মধ্যে কংগ্রেসের পাঁচ সাংসদও রয়েছেন। এপ্রিল মাসেই রাজ্যসভায় কংগ্রেসের সদস‌্য সংখ্যা ৩৪ থেকে ২৯ হবে। কংগ্রেসের সংখ্যা কমলেই চলতি বাজেট অধিবেশনের পরের বাদল অধিবেশনে রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতার পদ তাঁদের হাতছাড়া হওয়ার সম্ভাবনা।

তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই সমাজবাদী পার্টি, আম আদমি পার্টি ও বাকি বিরোধীদের সঙ্গে নিয়ে রাজ্যসভায় অ-বিজেপি, অ-কংগ্রেসি আলাদা ‘ব্লক’ তৈরি করার তোড়জোড় চলছে। অবশ্য বছরের শেষে কংগ্রেসের রাজ্যসভার সদস‌্য সংখ্যা বর্তমান ৩৪ থেকে বেড়ে ফের ৩৬ হতে পারে।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের রাজ্যসভা থেকে মোট ৭৭ জন সাংসদ অবসর নেবেন। তার মধ্যে সাতজন মনোনীত সদস্যও আছেন। আগামী ৩১ মার্চ এই সাংসদদের একসঙ্গে বিদায় সংবর্ধনা দেওয়ার জন্য নিজের বাসভবনে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছেন রাজ্যসভার চেয়ারম্যান তথা উপরাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নায়ডু। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করবেন তৃণমূলের রাজ্যসভার মুখ্য সচেতক সুখেন্দুশেখর রায়। অনুষ্ঠানে গান গাইবেন তৃণমূলের দোলা সেন, বিজেপির রূপা

বস্তুত, চলতি বছর জুড়েই পালটাতে থাকবে হিসেব-নিকেশ। সেইসঙ্গে রাজনৈতিক সমীকরণও। এপ্রিল মাসে রাজ্যসভার ১৮ জন সাংসদ অবসর গ্রহণ করতে চলেছেন। তার মধ্যে কংগ্রেসের পাঁচ সাংসদও রয়েছেন। এপ্রিল মাসেই রাজ্যসভায় কংগ্রেসের সদস‌্য সংখ্যা ৩৪ থেকে ২৯ হবে। কংগ্রেসের সংখ্যা কমলেই চলতি বাজেট অধিবেশনের পরের বাদল অধিবেশনে রাজ্যসভার বিরোধী দলনেতার পদ তাঁদের হাতছাড়া হওয়ার সম্ভাবনা।

তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে ইতিমধ্যেই সমাজবাদী পার্টি, আম আদমি পার্টি ও বাকি বিরোধীদের সঙ্গে নিয়ে রাজ্যসভায় অ-বিজেপি, অ-কংগ্রেসি আলাদা ‘ব্লক’ তৈরি করার তোড়জোড় চলছে। অবশ্য বছরের শেষে কংগ্রেসের রাজ্যসভার সদস‌্য সংখ্যা বর্তমান ৩৪ থেকে বেড়ে ফের ৩৬ হতে পারে।

প্রসঙ্গত, চলতি বছরের রাজ্যসভা থেকে মোট ৭৭ জন সাংসদ অবসর নেবেন। তার মধ্যে সাতজন মনোনীত সদস্যও আছেন। আগামী ৩১ মার্চ এই সাংসদদের একসঙ্গে বিদায় সংবর্ধনা দেওয়ার জন্য নিজের বাসভবনে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছেন রাজ্যসভার চেয়ারম্যান তথা উপরাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নায়ডু। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করবেন তৃণমূলের রাজ্যসভার মুখ্য সচেতক সুখেন্দুশেখর রায়। অনুষ্ঠানে গান গাইবেন তৃণমূলের দোলা সেন, বিজেপির রূপা

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *