www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

April 14, 2024 3:51 pm

খবরে আমরাঃ আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচনে তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে অভিনেতা ও প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী শত্রুঘ্ন সিনহার নাম ঘোষণা করা হয়েছে। আর তাঁর হয়ে প্রচারে আসছেন তাঁর মেয়ে বলিউড অভিনেত্রী সোনাক্ষী সিনহা। শত্রুঘ্ন সিনহার জন্য প্রচার করতে আসানসোলে যাবেন তিনি। সোমবার সকালেই রাজ্যের আইন ও পূর্ত দফতরের মন্ত্রী মলয় ঘটককে ফোন করে নিজেই এ কথা জানিয়েছেন শত্রুঘ্ন সিনহা। সূত্রের খবর, এ দিন বেশ কিছুক্ষণ তাঁদের মধ্যে কথা হয়। শত্রুঘ্ন সিনহা জানিয়েছেন, দু একদিনের মধ্যেই তিনি আসানসোলে যাবেন। সেখানেই আপাতত থাকবেন তিনি। মনোনয়ন জমা দিয়ে সারবেন প্রচার। তবে সোনাক্ষী কতদিনের জন্য আসানসোলে থাকবেন, তা জানা যায়নি। বাবার মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় সঙ্গে থাকবেন তিনি।

এ দিন সকালে মন্ত্রী মলয় ঘটককে ফোন করেন শত্রুঘ্ন সিনহা। বেশ কিছুক্ষণ কথাও বলেন তাঁরা। শত্রুঘ্ন সিনহা মলয় ঘটককে বলেছেন দিন দুয়েকের মধ্যেই তিনি আসানসোলে যাবেন। সেখানে থাকবেন আপাতত। ফোনে কথা বলার সময় মলয় ঘটক শত্রুঘ্ন সিনহাকে আশ্বস্ত করে বলেছেন, ‘চিন্তা করবেন না। আমরা অন্তত ২ লক্ষ ভোটে জয়ী হব। আপনি শুধু আসানসোলে আসুন। এখানে দলীয় কর্মী-সমর্থকেরা আপনাকে সঙ্গে নিয়ে প্রচারে নামতে রীতিমতো উৎসুক।’

মলয় ঘটক পরে জানিয়েছেন, আসানসোলে তাঁর থাকার জন্য ভাল জায়গার খোঁজ শুরু করেছেন তিনি। শত্রুঘ্ন সিনহা সেখানে থেকেই সারা আসানসোলে প্রচার চালাবেন। রবিবার থেকেই আসানসোলে দলের প্রার্থীর সমর্থনে প্রচারে নেমেছেন দলীয় কর্মীরা। চলছে কর্মীদের সভা। দেওয়াল লিখনও শুরু হয়েছে। প্রার্থী শত্রুঘ্ন সিনহা আসানসোলে পৌঁছনোর পর, তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব তাঁর সঙ্গে কথা বলে প্রচারের দিনক্ষণ ঠিক করবেন।

এ দিকে, রবিবার থেকেই আসানসোলের জায়গায় জায়গায় শুরু হয়েছে দেওয়াল লেখার কাজ। তৃণমূল বিধায়ক তথা রাজ্যের মন্ত্রী মলয় ঘটক জানিয়েছেন, প্রার্থী নিয়ে খুবই খুশি তাঁরা। আসানসোলের মেয়র বিধান উপাধ্যায়ও জানিয়েছেন, খুব ভাল প্রার্থী দিয়েছে দল। দলগতভাবে তাঁরা শত্রুঘ্ন সিনহাকে বিপুল ভোটে জেতাবেন।

এর আগেও একাধিকবার সেলেব্রিটিদের জনপ্রতিনিধি হওয়ার লড়াইতে দেখা গিয়েছে আসানসোলে। মুনমুন সেন, বাবুল সুপ্রিয়, সায়নী ঘোষ অনেকেই এসেছেন। আর এবার শত্রুঘ্ন সিনহার প্রচার নিয়ে অন্যরকম উৎসাহ ঘাসফুল শিবিরের অন্দরে।

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *