www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

May 27, 2024 2:18 pm

খবরে আমরাঃ বছরখানেক আগে থেকেই শুরু চূড়ান্ত প্রস্তুতি। খড় বাঁধা, মাটি লেপন কতই না কাজ। হাজারও পরিশ্রমের পর একতাল মাটিকে দেবীপ্রতিমার আকারে গড়ে তোলেন শিল্পী। কুমোরটুলির শিল্পীর হাতের ছোঁয়ায় তৈরি প্রতিমার বিদেশযাত্রা নতুন নয়। বাংলায় তৈরি মৃন্ময়ী দেবীপ্রতিমা একাধিকবার পাড়ি দিয়েছে বিদেশ বিভুঁইয়ে। তবে এবার একটু অন্যরকম। বিদেশের মাটিতে বসবাসকারী কোনও প্রবাসী বাঙালিদের পুজোয় নয়, এবার লন্ডনের ব্রিটিশ মিউজিয়ামে বসছে কুমোরটুলিতে তৈরি কালীপ্রতিমা। আগামী ১৭ মে মূর্তির উদ্বোধন।

নারীশক্তির ক্ষমতায়ন নিয়ে লন্ডনের ব্রিটিশ মিউজিয়ামে আগামী ১৭ মে একটি প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে। যার নাম দেওয়া হয়েছে ‘গডেস ফিমেল পাওয়ার ইন ওয়ার্ল্ড বিলিফ’। রুদ্ররূপ ধারণকারী তিন দেবী প্রদর্শনীতে জায়গা করে নিয়েছে। কুমোরটুলির শিল্পীর তৈরি কালীপ্রতিমা, গ্রিসের শিল্পের দেবী এথেনা এবং মিশরের যুদ্ধের দেবী সেখমেতের মূর্তি থাকবে প্রদর্শনীতে।

কুমোরটুলির শিল্পী কৌশিক ঘোষের হাতের ছোঁয়ায় তৈরি হয়েছে প্রতিমাটি। কালো রংয়ের কালী মূর্তির হাঁটু পর্যন্ত দুলছে মুণ্ডমালা। পায়ের নিচে শিবের অধিষ্ঠান। পিছনে সোনালি চালচিত্র। কালী মূর্তির ওজন ৩৫ কিলোগ্রাম। মূর্তিটি তৈরি করতে সময় লেগেছে দেড় মাস। মূর্তি ইতিমধ্যেই পৌঁছে গিয়েছে ব্রিটিশ মিউজিয়ামে। তবে আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ১৭ মে। ঐতিহাসিক মুহূর্তকে আরও মনোগ্রাহী করে তোলার জন্য আনন্দ গুপ্তের নির্দেশনায় রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘চিত্রাঙ্গদা’ নৃত্যনাট্য পরিবেশন করা হবে।

এখন প্রশ্ন উঠছে কীভাবে কুমোরটুলির শিল্পীর সঙ্গে যোগাযোগ করল ব্রিটিশ মিউজিয়াম কর্তৃপক্ষ। ইউরোপের প্রথম দুর্গাপুজোর আয়োজক ক্যামডেন দুর্গাপুজো কমিটির সঙ্গে যোগাযোগ করে মিউজিয়াম কর্তৃপক্ষ। উল্লেখ্য, গত ৫৯ বছর ধরে বিদেশের মাটিতে বাঙালির সেরা উৎসবকে তুলে ধরে ক্যামডেন দুর্গাপুজো কমিটি। ওই কমিটির চেয়ারপার্সন ডাঃ আনন্দ গুপ্ত বলেন, “সত্যি এক ইতিহাসের সাক্ষী হতে চলেছি। এমন একটা উদ্যোগের সঙ্গে থাকতে পেরে অত্যন্ত গর্বিত।” ব্রিটিশ মিউজিয়ামে কুমোরটুলির কালীপ্রতিমার উদ্বোধন যেকোনও বাঙালির কাছে যে যথেষ্ট গর্বের, সে বিষয়ে কোনও সন্দেহ নেই।

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *