www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

February 22, 2024 2:06 pm
partha chatterjee-cbi

আর তারপরেই শুরু হয় ইডির জেরা-সহ চিকিৎসা। ইডি হেফাজতেই পার্থের ওজন কমেছে ৩ কেজি। তাই বা কম কিসের। এতে অনেক ভাল হয়েছে বলেই মনে করছেন চিকিৎসকেরা। যেটা মন্ত্রী হিসাবে নিরাপত্তাকর্মীদের বেষ্টনী আর কাজের লোকেদের আদর যত্নে সম্ভব হয়নি এতদিন। তাই করে দেখালেন ইডি কর্তারা।

একাধিক রোগে আক্রান্ত। হৃদরোগের সঙ্গে কিডনি, শ্বাসকষ্ট, ওজন বেজি সহ একাধিক রোগে আক্রান্ত পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee)। ইডির (ED) হাতে গ্রেফতারের সঙ্গে সঙ্গেই এই রোগ ভরসায় এসএসকেএমের বেডে আশ্রয় নিয়েছিলেন পার্থ। ভেবেছিলেন জেরা বোধ হয় আটকানো গেল। কিন্তু বিধি বাম। কলকাতা হাইকোর্টের (Calcutta Highcourt) নির্দেশে ভুবনেশ্বরের এইমসে (Bhubaneswar AIIMS)স্বাস্থ্য পরীক্ষা হল তাঁর। রোগ থাকলেও ভর্তির প্রয়োজন নেই বলেই জানিয়ে দেন সেখানকার চিকিৎসকেরা।

আর তারপরেই শুরু হয় ইডির জেরা-সহ চিকিৎসা। ইডি হেফাজতেই পার্থের ওজন কমেছে ৩ কেজি। তাই বা কম কিসের। এতে অনেক ভাল হয়েছে বলেই মনে করছেন চিকিৎসকেরা। যেটা মন্ত্রী হিসাবে নিরাপত্তাকর্মীদের বেষ্টনী আর কাজের লোকেদের আদর যত্নে সম্ভব হয়নি এতদিন। তাই করে দেখালেন ইডি কর্তারা।

অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে (Arpita Mukherjee) তেমন চেনেন না। নাকতলার পুজোয় তাঁকে দেখেছেন। এভাবেই ইডির কাছে অর্পিতার সঙ্গে নিজের ঘনিষ্ঠতা অস্বীকার করেছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। অথচ অর্পিতার নামে যে বিমাগুলি রয়েছে, তার মধ্যে ৩১টি বিমায় নমিনি হিসেবে নাম রয়েছে রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থর! যাঁর সঙ্গে তেমন পরিচয়ই নেই, তাঁর বিমার নমিনিতে তাহলে পার্থর নাম কেন? এই প্রশ্ন মাথাচাড়া দিতেই ফের সামনে এল নয়া তথ্য। জানা গিয়েছে, বিমার নথিতে পার্থকে ‘আঙ্কল’ হিসেবে নমিনিতে রেখেছেন অর্পিতা!

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের (Partha Chatterjee) বাড়িতে গিয়েই প্রথমবার অর্পিতার খোঁজ পেয়েছিলেন এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের আধিকারিকরা। তারপর একে একে অর্পিতার একাধিক ফ্ল্যাট থেকে বাজেয়াপ্ত হয় বিপুল পরিমাণ টাকা, গয়না। খোঁজ মেলে স্থাবর ও অস্থাবর সম্পত্তির। এমনকী শান্তিনিকেতনে ‘অপা’ নামের বাড়িটির দলিল প্রকাশ্যে এলে দেখা যায়, সেখানে পার্থ ও অর্পিতা, দু’জনেরই নাম ছিল। অর্থাৎ যৌথভাবেই সে সম্পত্তি কেনেন তাঁরা। এরপরও অর্পিতার সঙ্গে নিজের ঘনিষ্ঠতা অস্বীকার করেছেন পার্থ। এবার জানা যাচ্ছে, অর্পিতা (Arpita Mukherjee) নিজের বিমার নথির নমিনিতে ‘আঙ্কল’ হিসেবে রেখেছিলেন পার্থকে। যা নিয়ে ফের শুরু হয়েছে চর্চা!

ইডির (ED) সিজিও কমপ্লেক্সে ১৪ দিন আলাদা আলাদা লক আপে ছিলেন পার্থ ও অর্পিতা। জানা গিয়েছিল, হেফাজতে ঠিকমতো খাওয়া-দাওয়াও করতে চাইছিলেন না পার্থ। তিনি যাতে চিকিৎসকের ডায়েট মেনে চলেন, তার জন্য অর্পিতার শরণাপন্ন হতে হয়েছিল ইডি আধিকারিকদের। অর্পিতার ধমকেই নিয়ম মেনে খেতে রাজি হয়েছিলেন পার্থ। তবে জানা গিয়েছে, এই ক’দিনে মোট ৩ কেজি ওজন কমেছে তাঁর।

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *