www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

April 14, 2024 5:36 pm
women police dance

উত্তরাখণ্ডের রাজ্য পুলিশের সদর দফতরের ভিতরে এই ঘটনা ঘটলেও, দেরাদুন পুলিশের তরফে এই বিষয়ে একটি অভ্যন্তরীণ তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়। দেরাদুন পুলিশ ক্রাইম ব্রাঞ্চের সুপারিন্টেনডেন্ট বিশাখা ভাদানেকে এই তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বলেই জানান সিনিয়ার সুপারিন্টেনডেন্ট দালিপ সিং কুমার। এই গোটা ঘটনাটির তদন্ত করে একটি রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে তাঁকে।

রাজ্য পুলিশের কন্ট্রোল রুম। কন্ট্রোল রুমে বেজেই চলেছে একের পর এক ফোন। আর সেই ফোন ধরার মাঝেই উদ্দাম নৃত্যে মাতলেন 6 মহিলা পুলিশ অফিসার। শুধু তাই নয় ভিডিয়ো তুলে সামাজিক মাধ্যমেও আপলোড করেন তাঁদের মধ্যে একজন।

সম্প্রতি নেট মাধ্যমে ভাইরাল হয় একটি ভিডিয়োতে (Video) দেখা যায়, রাজ্য পুলিশের কন্ট্রোল রুমে (Police Control Room) উদ্দাম নৃত্যে মেতেছেন 6 মহিলা পুলিশকর্মী। তবে, অভিযুক্ত পুলিশকর্মীদের কেউই পুলিশের পোশাকে ছিলেন না। তাঁরা সকলেই ছিলেন সাদা পোশাকে। খুব সম্ভবত দীপাবলির দিন এই ভিডিয়োটি তোলা হয়।

ঘটনাটি দেরাদুনে (Deheradun) অবস্থিত উত্তরাখণ্ড (Uttakakhand) রাজ্য পুলিশের কন্ট্রোল রুমের। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ইতিমধ্যেই একটি অভ্যন্তরীণ তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন দেরাদুনের সিনিয়র সুপারিন্টেনডেন্ট অফ পুলিশ দালিপ সিং কুমার।

এই ঘটনার মোট তিনটি ভিডিয়ো সামনে আসে। দুটি 15 সেকেন্ডের ও একটি 9 সেকেন্ডের ভিডিয়ো। এই অফিসারদের মধ্যেই কোনও একজন অফিসার এই ভিডিয়োটি সামাজিক মাধ্যমে আপলোড করেন। ভিডিয়োতে পুলিশ কন্ট্রোল রুমের ভিতরে তাঁদের নাচতে দেখা যায়। সাওয়ার কামিজ পড়ে নাচতে দেখা যায় পুলিশকর্মীদের। শুধুমাত্র নাচের ভিডিয়োই নয়, একে অপরের সঙ্গে মিলে রিল বানাতেও দেখা যায় তাঁদের। কন্ট্রোল রুমের ভিতরে রাখা বিভিন্ন কম্পিউটার ও ফোনও দেখা যায় এই ভিডিয়োতে। নিমেষের মধ্যেই ভাইরাল হয় সেই ভিডিয়ো।

উত্তরাখণ্ডের রাজ্য পুলিশের সদর দফতরের ভিতরে এই ঘটনা ঘটলেও, দেরাদুন পুলিশের তরফে এই বিষয়ে একটি অভ্যন্তরীণ তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়। দেরাদুন পুলিশ ক্রাইম ব্রাঞ্চের সুপারিন্টেনডেন্ট বিশাখা ভাদানেকে এই তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে বলেই জানান সিনিয়ার সুপারিন্টেনডেন্ট দালিপ সিং কুমার। এই গোটা ঘটনাটির তদন্ত করে একটি রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে তাঁকে। সেই রিপোর্ট পাওয়ার পরেই পুলিশ সদর দফতরের আধিকারিকদের কাছেই তা পাঠানো হবে বলেই জানিয়েছেন তিনি।

এই ভিডিয়োটির ক্ষেত্রে নেটিজেনদের কাছ থেকে মিশ্র প্রতিক্রিয়া পাওয়া গেছে। অনেকেই যেমন পুলিশের এই আচরণের তীব্র নিন্দা করেছেন, তেমনই অন্যদিকে, কাজের মধ্যে থেকেও দীপাবলির আনন্দ উপভোগ করার জন্য এই পুলিশকর্মীদের সাধুবাদও জানিয়েছেন বেশ কিছু নেটিজেন। দীপাবলির মধ্যে ডিউটি করার মাঝেই নিজেদের আনন্দের জন্য যেই সময়টুকু তাঁরা খুঁজে নিয়েছেন, তার জন্য তাঁদের সাধুবাদও দিতে দেখা গেছে বেশ কিছু নেটিজেনকে।

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *