www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

February 22, 2024 12:15 pm
calcutta highcourt

প্রধান বিচারপতির (Chief Justice of Calcutta HighCourt) কাছে তাঁর আবেদন মুখ্যমন্ত্রী ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা একাধিক বেআইনি লেনদেন ও আর্থিক সুবিধা গ্রহণ করে নামে বেনামে প্রচুর সম্পত্তি গড়ে তুলেছেন। কিন্তু এর বিরুদ্ধে কেউ কোনও প্রতিবাদ করছে না। তাই কেন্দ্রীয় সংস্থা সিবিআই (CBI), ইডি (ED) বা আয়কর দফতরকে (Income Tax Dept) দিয়ে পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করানো হোক।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীর আয় বহির্ভূত সম্পত্তির হিসাব চেয়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা দায়ের হল। অরিজিৎ মজুমদার নামে এক আইনজীবী এই মামলা দায়ের করেছেন। প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তবের ডিভিশন বেঞ্চে এই মামলা করে অবিলম্বে কেন্দ্রীয় হস্তক্ষেপে তদন্ত চেয়েছেন তিনি।

মামলাকারী আদালতে জানিয়েছেন, মমতা ব্যানার্জী  (Mamata Banerjee) একটি দরিদ্র পরিবার থেকে উঠে এসেছেন এবং তাঁর ছয় ভাই রয়েছে। ১৯৯৭ সালে তিনি কংগ্রেস (Indian national congress) ছেড়ে এই তৃণণূল কংগ্রেস (trinomool congress) গঠন করেন।

তাঁর অভিযোগ, ২০১১ সাল থেকে বর্তমানে মুখ্যমন্ত্রী ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের সম্পত্তির অস্বাভাবিক বৃদ্ধি হয়েছে। ২০১৩ সালে থোদ বর্তমানে তৃণমূলের মুখপত্র কুণাল ঘোষ (Kunal Ghosh) নিজেই অভিযোগ করেছিলেন যে, মমতা নিজেই বেআইনি অর্থলগ্নি সংস্থা সারদার (Sarada Chit Fund) থেকে বেনামে প্রচুর সুবিধা নিয়েছেন।

মুখ্যমন্ত্রীর নিজের ভাইয়ের স্ত্রী কাজরী (kajari Banerjee) কলকাতা পুরনিগমের Calcutta Corporation) নির্বাচনে হলফনামা নিয়ে নির্বাচন কমিশনে জানিয়েছেন তাঁর স্বামী (মুখ্যমন্ত্রীর ভাই) একজন সমাজ সেবক। কিন্তু তিনি সচেতন ভাবেই কে.বি ফাউন্ডেশন K B Foundation) , কে.এ ক্রিয়েটিভ এলএলপি (K B creative LLP) সংস্থার কথা এড়িয়ে যান। তাঁরা এই দুই সংস্থার অন্যতম কর্তা বলে অভিযোগ মামলাকারীর।

মামলাকারী উল্লেখ করেছেন, ২০১১ সালে ক্ষমতায় আসার পরে মমতা ব্যানারীজ ও তাঁর পরিবারের নামে একাধিক বেসরকারি সংস্থা গড়ে উঠেছে। তাদের মধ্যে অন্যতম হল লিপস অ্যান্ড বাউন্ড ইন্ফ্রা কলসালটেন্ট প্রাইভেট লিমিটেড Leaps & Bound Infra Consultant private ltd) , লিপস অ্যান্ড বাউন্ড প্রাইভেট লিমিটেড Leaps & Bound Private Limited), লিপস অ্যান্ড বাউন্ড ম্যানেজমেন্ট সার্ভিসেস (Leaps & Bound Management Services) এবং ত্রিনেত্র কলসালটেন্ট Trinetra Consultant)। এগুলি মমতা ব্যানার্জী ক্ষমতায় আসার পরেই ধাপে ধাপে নিজের পরিবারের সদস্যেরা গড়ে তুলেছেন। এগুলি থেকেই নামে বেনামে প্রচুর বেআইনি আর্থিক লেনদেন হয় এবং মুখ্যমন্ত্রী ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা সুবিধা পেয়ে আসছেন।

প্রধান বিচারপতির (Chief Justice of Calcutta HighCourt) কাছে তাঁর আবেদন মুখ্যমন্ত্রী ও তাঁর পরিবারের সদস্যরা একাধিক বেআইনি লেনদেন ও আর্থিক সুবিধা গ্রহণ করে নামে বেনামে প্রচুর সম্পত্তি গড়ে তুলেছেন। কিন্তু এর বিরুদ্ধে কেউ কোনও প্রতিবাদ করছে না। তাই কেন্দ্রীয় সংস্থা সিবিআই (CBI), ইডি (ED) বা আয়কর দফতরকে (Income Tax Dept) দিয়ে পূর্ণাঙ্গ তদন্ত করানো হোক।

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *