www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

June 26, 2024 2:00 am

খবরে আমরাঃ দীর্ঘদিন পর ফের প্রকাশ্যে দলের কোনও কর্মসূচিতে দেখা গেল সিপিএম নেতা গৌতম দেবকে। দলের যুব সংগঠন ডিওয়াইএফআইয়ের সর্বভারতীয় সম্মেলন উপলক্ষে সল্টলেকে শুক্রবার এক প্রদর্শনীতে উপস্থিত হন গৌতম দেব। দলের প্রাক্তন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য গৌতমবাবু হঠাৎ করে প্রকাশ্যে কোনও দলীয় কর্মসূচিতে আসায় জল্পনা শুরু হয়েছে।

এদিন ৩৪ বছরের বামফ্রন্ট সরকারের সাফল্য নিয়ে একটি প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছিল যুবদের তরফে। একইসঙ্গে সর্বভারতীয় সম্মেলনের মঞ্চ থেকে এদিন কর্মসংস্থানের দাবিতে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের বিরুদ্ধে লাগাতার আন্দোলনের ডাক দেওয়া হয়েছে। নরেন্দ্র মোদির জমানায় কর্মসংস্থান হারিয়ে গিয়েছে। স্বাধীনতার পরে বেকারত্বের এই সংকট কখনও দেখা যায়নি বলে মনে করছে যুব নেতৃত্ব। এদিকে, সিপিএমের সদস্য সংখ্যা কমলেও তার উলটো ছবি সেই দলেরই যুব সংগঠনে। সিপিএমের যুব সংগঠন ডিওয়াইএফআইয়ের সদস্য সংখ্যা গত দু’বছরে ২ লক্ষাধিক বেড়েছে বলে সংগঠন সূত্রে খবর। আগে ছিল ২৮ লক্ষ। তারপর ২০১৯-২০ সালে বেড়েছিল ১ লক্ষ। ২০২০-২১ সালে বাড়ে ৫০ হাজার।

সংগঠন সূত্রে খবর, কলকাতা ছাড়া সমস্ত জেলাতেই সদস্য সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়েছে। উত্তরবঙ্গে যেখানে বিজেপির সংগঠন মজবুত বলে দাবি করে আসেন গেরুয়া শিবিরের নেতারা। সেই উত্তরবঙ্গেও ডিওয়াইএফআইয়ের অগ্রগতি ভাল। বিপরীত পরিস্থিতিতেও পশ্চিমবঙ্গে ডিওয়াইএফআইয়ের এই সদস্য সংখ্যা বৃদ্ধি হওয়ায় সর্বভারতীয় সম্মেলনে উপস্থিত অন্য রাজ্যের প্রতিনিধিরাও প্রশংসা করেছেন। ২৭ বছর পর কলকাতায় হচ্ছে সিপিএমের যুব সংগঠন ডিওয়াইএফআইয়ের সর্বভারতীয় সম্মেলন। বৃহস্পতিবার প্রকাশ্য সমাবেশের পর শুক্রবার থেকে সল্টলেকের ইজেডসিসি-তে সম্মেলন শুরু হয়েছে।

দলীয় সূত্রে খবর, কেরল লবির চাপে শেষমেশ কোনও পরিবর্তন না হলে ডিওয়াইএফআইয়ের পরবর্তী সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক পদে আসতে চলেছেন বাংলার যুব নেতা হিমঘ্নরাজ ভট্টাচার্য। বয়সের কারণে সাধারণ সম্পাদক থেকে বিদায় নিতে চলেছেন অভয় মুখোপাধ্যায়। কেরলের এ এ রহিম কয়েক মাস আগেই সর্বভারতীয় সভাপতি হয়েছেন। তিনি রাজ্যসভার সাংসদও। ফলে সভাপতি পদে রদবদল হচ্ছে না বলেই খবর। যুবনেত্রী মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়কে আপাতত রাজ্যেই রেখে দিতে চায় সিপিএম। শুক্রবার সল্টলেকের ইজেডসিসি-তে সম্মেলনের উদ্বোধন করবেন দক্ষিণী সংবাদমাধ্যম এশিয়ানেটের প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক পি শশীকুমার। বক্তব্য রাখেন মহিলা নেত্রী মারিয়াম ধাবালে, কৃষক সংগঠনের তরফে হান্নান মোল্লা, সিটুর তপন সেন, এসএফআইয়ের ময়ূখ বিশ্বাস প্রমুখ।

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *