www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

April 16, 2024 12:13 am

কলকাতা : আসানসোল ও বালিগঞ্জের উপনির্বাচনের (Bye Elections 2022) নির্ঘণ্ট ঘোষণা করল নির্বাচন কমিশন (Election Commission of India)। আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রে উপনির্বাচন হবে ১২ এপ্রিল। ওই একই দিনে উপনির্বাচন হবে বালিগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রে। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হবে ১৭ মার্চ থেকে। মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ২৪ মার্চ। ভোট গণনা হবে ১৬ এপ্রিল। পশ্চিমবঙ্গের এক বিধানসভা কেন্দ্র ও এক লোকসভা কেন্দ্র ছাড়াও ছত্তীসগঢ়ের খৈড়াগঢ় বিধানসভা কেন্দ্র,  বিহারের বোচাহান বিধানসভা কেন্দ্র এবং মহারাষ্ট্রের কোলাপুর উত্তর বিধানসভা কেন্দ্রেরও উপনির্বাচন রয়েছে ১২ এপ্রিল।

আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রের সাংসদ ছিলেন তৃণমূল নেতা বাবুল সুপ্রিয়। ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে তিনি বিজেপির টিকিটে প্রার্থী হয়ে জয়ী হয়েছিলেন আসানসোল লোকসভা কেন্দ্র থেকে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মন্ত্রিসভার সদস্যও ছিলেন। কিন্তু সম্প্রতি মোদীর মন্ত্রিসভার সম্প্রসারণের সময় মন্ত্রিত্ব খোয়াতে হয় বাবুল সুপ্রিয়কে। আর তারপরই বিজেপি ত্যাগ করে তৃণমূলে যোগ দেন তিনি। সেই সঙ্গে বিজেপি টিকিটে হওয়া সাংসদ পদও ত্যাগ করেছিলেন তিনি। ফলে আসানসোল লোকসভা কেন্দ্রটি অভিভাবকহীন হয়েই পড়ে ছিল। এবার ১২ এপ্রিল আসানসোলবাসী তাদের নতুন জনপ্রতিনিধি বেছে নেবেন। এর পাশাপাশি বালিগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের বিধায়ক তথা বর্ষীয়ান নেতা সুব্রত মুখোপাধ্যায়ও প্রয়াত হয়েছেন। সেই কারণে, বালিগঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রেও উপনির্বাচন হবে ওই একই দিনে।

কমিশনের তরফে জানানো হয়েছে প্রত্যেকটি ভোটগ্রহণ কেন্দ্রে ইভিএমের পাশাপাশি ভিভিপ্যাটও ব্যবহার করা হবে। চার রাজ্যের উপনির্বাচনের জন্য প্রয়োজনীয় ইভিএম এবং ভিভিপ্যাট তৈরি রেখেছে নির্বাচন কমিশন। উপনির্বাচন যাতে সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়, তার জন্য প্রয়োজনীয় সবরকম ব্যবস্থা নিচ্ছে কমিশন। দেশে বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে এসে গিয়েছে, কিন্তু তাও কোনও ঝুঁকি নিয়ে চাইছে না কমিশন। শারীরিক দূরত্ববিধি, মাস্ক, ফেস শিল্ড ও স্যানিটাইজ়ারের ব্যবহারের উপর জোর দেওয়া হয়েছে। যদি কোনও প্রার্থী বা কোনও দল কমিশনের গাইডলাইন অমান্য করে, তাহলে ওই প্রার্থী বা দলকে আর কোনও সভা সমাবেশ করতে দেওয়া হবে না। কোনও তারকা প্রচারক যদি কোভিড বিধি অমান্য করেন, তাহলে সংশ্লিষ্ট লোকসভা বা বিধানসভা কেন্দ্রে ওই তারকা প্রচারককে আর প্রচার করতে দেওয়া হবে না।

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *