www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

June 24, 2024 3:24 am

খবরে আমরাঃ কুণাল ঘোষের পর এবার অপরূপা পোদ্দার। বললেন, ২০২৪ সালেই বাংলার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ নেবেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। নজিরবিহীনভাবে কটাক্ষ করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়কে। তবে টুইট নিয়ে বিতর্ক দানা বাঁধতেই তা ডিলিট করেন সাংসদ।

মঙ্গলবার সকালে একটি টুইট করেন আরামবাগের সাংসদ অপরূপা পোদ্দার। সেখানে তিনি লেখেন, “আমি চাই,আমাদের দিদি ২০২৪ সালে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে শপথ নেবেন আরএসএস মনোনীত রাষ্ট্রপতির থেকে।” এরপরই রাজ্যপালকে কটাক্ষ করে লেখেন, “বিজেপির গোবর্ধন জগদীশ ধনকরের থেকে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে ২০২৪ সালে শপথ নেবেন আমাদের প্রিয় যুবনেতা অভিষেক বন্দোপাধ্যায়” অর্থাৎ কুণালের সুরেই সুর মেলালেন অপরূপা। টুইট প্রসঙ্গে অপরূপা বলেন, “মুখ্যমন্ত্রী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে ২০ ঘণ্টাই মানুষের জন্য কাজ করেন। উনি প্রধানমন্ত্রী পদের দাবিদার।”

তবে অভিষেকের মুখ্যমন্ত্রিত্ব নিয়ে টুইট করে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়েন অপরূপা। কিছুক্ষণের মধ্যেই টুইটটি ডিলিটও করে দেন সাংসদ। গতকাল অভিষেকের মুখ্যমন্ত্রী হওয়া প্রসঙ্গে একটি ফেসবুক পোস্ট করেছিলেন কুণাল ঘোষ। লিখেছিলেন, “২০৩৬ সাল পর্যন্ত বাংলার মুখ্যমন্ত্রী থাকবেন মমতাদি। আর সেই ২০৩৬ সালে তিনি অভিভাবকের মতো উপস্থিত থাকবেন এমন অনুষ্ঠানে, যেখানে মুখ্যমন্ত্রীর পদে শপথ নেবেন অভিষেক। মুখ্যমন্ত্রিত্বে জ্যোতি বসুর রেকর্ড ভেঙে ভারতে নজির গড়বেন মমতাদি। তবে তার মধ্যে যদি দিল্লির এবং দেশের দায়িত্ব নিতে হয়, তাহলে পরিস্থিতি আরেকরকম তো হবেই।” মঙ্গলবার কার্যত একই সুর শোনা গেল অপরূপার গলায়।

কুণাল ঘোষের কথায়, দলকে আরও এগিয়ে নিয়ে যেতে হলে শুধু আত্মতুষ্টি নয়, আত্মসমালোচনাকেও আরও গুরুত্ব দিতে হবে। দলীয় কর্মী-সমর্থকদের প্রতি তাঁর বার্তা, “মেদজনিত নেতিবাচকতা থেকে সতর্ক থাকতেই হবে।” 

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *