www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

June 19, 2024 3:39 pm

জ্যোতিষশাস্ত্রে, শনি গ্রহের বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। যখন কোনও ব্যক্তি শুভ কাজ করেন শনি তাঁকে শুভ ফল দেয়। যে ব্যক্তি অশুভ কাজ করেন এই গ্রহ তাঁকে অশুভ ফল দিয়ে থাকেন। তেমনই শনি জয়ন্তীরও বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। এই বিশেষ দিনে শনিদেবের বিশেষ পুজোর আয়োজন করেন তার ভক্তরা। প্রতিবছর জৈষ্ঠ মাসের অমাবস্যা তিথিতে শনি জয়ন্তী পালিত হয়।

সূর্য দেবতার পুত্র শনি দেবের জন্মবার্ষিকীকে পঞ্জিকা মতে বিশেষ দিন মানা হয়। বড়ঠাকুরের অশুভ প্রভাব এড়াতে শনির সাড়ে সাতিতে বেশ কিছু কাজ করতে পারেন। শনি জয়ন্তীর প্রতিকার শনিদেবের অসন্তুষ্টি থেকে রক্ষা করে। তাই শনি জয়ন্তীর দিন রীতি অনুযায়ী শনিদেবের পুজো করা উচিত। কিছু ব্যবস্থাও নিতে হবে। 

বছরে দুবার শনি জয়ন্তী (Shani Jayanti) পালিত হয়। কিছু রাজ্যে, বৈশাখ অমাবস্যায় শনি (Shani) জয়ন্তী পালিত হয় এবং কিছু রাজ্যে জ্যৈষ্ঠ মাসের অমাবস্যায় শনি জয়ন্তী পালিত হয়। এ বছর বৈশাখ অমাবস্যা ৮ মে এবং জ্যৈষ্ঠ অমাবস্যা ৬ জুন। তাই এই দুই দিনে শনি জয়ন্তী পালিত হবে। শনি জয়ন্তীর দিন কোনও ভুল করা উচিত নয়, অন্যথায় শনি রাগ করতে পারেন। শনির অসন্তুষ্টি আর্থিক সীমাবদ্ধতা, শারীরিক-মানসিক কষ্ট, অগ্রগতিতে বাধাসহ নানা সমস্যার সৃষ্টি করে।

জানুন শুভ সময়

চলতি বছর ৫ জুন সন্ধ্যা ৭টা ৫৩ মিনিট থেকে শুরু হবে শনি জয়ন্তী। অমাবস্যা তিথি ৬ জুন সন্ধ্যা ছটা ছয় মিনিটে শেষ হবে। এদিন শনিদেবের পুজো করা অত্যন্ত শুভ। যদি আপনার জন্মকুণ্ডলীতে শনির অশুভ দৃষ্টি থাকে বা শনি দুর্বল স্থানে থাকে তাহলে আপনি এই কাজগুলি করতে পারেন। সেই সঙ্গে শনি জয়ন্তীতে এই কাজগুলি করলে শনি দেবতা খুব খুশি হন। আর্থিক দিকেও আপনার লাভ হবে।

জানুন কী কী কাজ করবেন।

কালো কুকুরকে খাওয়ান শনি জয়ন্তীর দিন কোনও কালো কুকুরকে রুটিতে সরিষার তেল মাখিয়ে খাওয়াবেন। এতে শনিদেবের (Shanidev) বিশেষ আশীর্বাদ আপনি পাবেন। তাছাড়া আপনার মনের ইচ্ছা পূরণ হবে। জীবনে সকল কাজে এগিয়ে যেতে পারবেন আপনি।

সরিষার তেল দিয়ে প্রদীপ জ্বালাবেন শনি জয়ন্তী দিন অশ্বথ গাছের নিচে সরিষার তেল দিয়ে পাঁচটি প্রদীপ জ্বালান। এতে শনিদেব খুব খুশি হবেন। জীবনে যদি কোনও সমস্যায় আপনি পড়েন সেটি থেকে বের হতে পারবেন। আর্থিক অবস্থার আরোও উন্নতি হবে। ভাগ্যের দ্বার খুলবে এই রাশির ব্যক্তিদের।

সাড়েসাতি ও ধইয়ার প্রভাব এড়াতে কী করবেন শনি জয়ন্তীর দিন শনি মন্দিরে গিয়ে দেবতার পূজো দিন। মূর্তির সামনে বসে শনি চল্লিশা পাঠ করুন। সাড়েসাতি ও ধইয়ার প্রভাব আপনার ওপর পড়বে না। তাছাড়া শনির কৃপা পাবেন আপনি। জীবনে সকল কাজে এগিয়ে যেতে পারবেন আপনি। অভাবী ব্যক্তিদের এগুলি দান করুন শনি জয়ন্তীর দিন শনিদেবের বিশেষ কৃপা পেতে দারিদ্র অভাবী, ব্যক্তিদের সরষের তেল, কম্বল, দক্ষিণা দান করুন।

এতে আপনি শনিদেবের কুদৃষ্টি থেকে মুক্তি পাবেন। সেই সঙ্গে কর্মজীবনেও সফলতা অর্জন করতে পারবেন। শনিদেবের কৃপায় আপনার জীবনে সাফল্য আসবে। তবে শনি জয়ন্তী দিন শনি দেবের পূজো করুন। শনিদেবের পুজোর সময় দেবতার চোখের দিকে না তাকিয়ে শুধু শনি মহারাজের পায়ের দিকে তাকাবেন।

এই সপ্তাহে শনি জয়ন্তী। জ্যৈষ্ঠ মাসের অমাবস্যা তিথিতে শনির জন্মজয়ন্তী। এই তিথিতেই জন্মগ্রহণ করেছিলেন সূর্য ও ছায়ার পুত্র শনি। পরবর্তীকালে তাঁকেই কর্মফলদাতা ও ন্যায়দণ্ডাধিকারীর পদ প্রদান করা হয়। শনির শুভ ফল যে কোনও ব্যক্তিকে সাফল্যের শীর্ষে পৌঁছে দিতে পারে। আবার বক্র দৃষ্টির কারণে ব্যক্তির জীবনে ঘনিয়ে আসতে পারে অন্ধকার। তাই শনিকে তুষ্ট করার বিভিন্ন উপায় সম্পর্কে জ্যোতিষ শাস্ত্রে জানানো আছে। শনি জয়ন্তীর দিনে বিশেষ পুজো করে বড়ঠাকুরকে সহজেই খুশি করতে পারেন। শনির কারণে আপনার জীবনও সমস্যায় ঘিরে থাকলে শনি জয়ন্তীতে কী করবেন, তা জেনে নিন এখানে।

শনি জয়ন্তী পুজোর মহাউপায়

কোষ্ঠীতে (Astrology) শনি দোষ থাকার দরুণ সমস্যায় জড়িয়ে থাকলে তা থেকে মুক্তি পেতে (Astro) শনি জয়ন্তীতে মহাউপায় করতে পারেন। হিন্দু ধারণা অনুযায়ী শনিকে সর্ষের তেল অর্পণ করার বিশেষ মাহাত্ম্য রয়েছে। তবে শনিকে সর্ষের তেল নিবেদন করার বিশেষ নিয়ম বর্তমান।

শাস্ত্র মতে শনি জয়ন্তীর দিনে স্নান করার পর ভেজা কাপড়ে এক বাটি সর্ষের তেল নিয়ে তাতে নিজের মুখ দেখুন। তার পর সেই তেলটি শনিকে অর্পণ করুন। এ সময়ে ওম শং শনৈশ্চরায় নমঃ মন্ত্র জপ করবেন। মনে করা হয় এই উপায় করলে শনি সংক্রান্ত সমস্ত কষ্ট দূর হয়ে যায়। ব্যক্তির ওপর আশীর্বাদ বর্ষণ করেন শনি।

শনি দর্শনের ফলে দূর হবে দুঃখ

হিন্দু ধারণা অনুযায়ী শনি জয়ন্তীতে শনি দর্শন ও পুজো করা উচিত। সম্ভব হলে শনি জয়ন্তীতে দেশের পবিত্র শনি মন্দিরে গিয়ে পুজো দিন। মহারাষ্ট্রের শনি শিংনাপুর মন্দির, তামিলনাড়ুর তিরুনল্লরু মন্দির ও উত্তর প্রদেশের মথুরায় অবস্থিত কোকিলাবন ধামে শনি পুজো ও দর্শন করা অত্যন্ত শুভ।

শনি দোষ থেকে মুক্তির জন্য যে বিষয়গুলি মাথায় রাখবেন

কোষ্ঠীতে শনি দোষ থাকলে এই উপায়ের পাশাপাশি আরও কিছু বিষয় মেনে চলা উচিত। জ্যোতিষ অনুযায়ী শনি দোষ থেকে মুক্তি পেতে শনিবার চটি-জুতো কিনবেন না। আবার কাউকে চটি-জুতো উপহার দেবেন না। দরিদ্র, অসহায়, দুর্বল, কুষ্ঠ রোগী, দিব্যাঙ্গ ব্যক্তিতের দুঃখ দেওয়া থেকে বিরত থাকুন। তা না-হলে শনির রোষে কষ্ট বাড়বে জীবনে।

কোন কোন কাজ করবেন না? 

শনিদেবের পুজোয় কখনই তামার পাত্র ব্যবহার করবেন না। তামা সূর্যের সঙ্গে সম্পর্কিত এবং সূর্য ও শনির মধ্যে শত্রুতা রয়েছে

শনিদেবের পিতা সূর্যদেব কিন্তু তিনিই তাঁর চরম শত্রু। তাই শনিদেবের পুজোয় তামার পাত্র ব্যবহার করা হলে তারা রেগে যান। 

শনির দৃষ্টি সর্বদা এড়িয়ে চলা উচিত। তাই শনিদেবের পুজো করার সময় কখনও মূর্তির সামনে দাঁড়াবেন না বা তাঁর চোখের দিকে তাকাবেন না। বরং একটু দূরে দাঁড়ান। 

শনিদেবের পুজো করার সময় পশ্চিম দিকে মুখ রাখুন। 

শনি জয়ন্তীর দিন লবণ, লোহা, তেল কিনবেন না। আপনি যদি দান করতে চান তবে এটি এক দিন আগে কিনে নিন। শনি জয়ন্তীর দিন শনি সংক্রান্ত জিনিস বাড়িতে আনতে ভুল করবেন না। নইলে জীবন কষ্টে ভরে যাবে। 

শনি জয়ন্তীর দিন কোনো পশু-পাখিকে হয়রানি করবেন না। এই ভুল আপনার জীবনে সমস্যা ডেকে আনতে পারে। যাইহোক, কোনও দিন কোনও জীবকে হয়রানি করবেন না। 

শনিকে দরিদ্রদের রক্ষাকর্তা বলা হয়। তাই এই দিনে অসহায় মানুষ ও শ্রমিকদের হয়রানি করবেন না। 

১. শনির শক্তিশালী মন্ত্র

 ওম শং শনিশ্চরায় নমঃ
শনি জয়ন্তীর দিনে শনির পুজো করার সময় এই মন্ত্র জপ করবেন। এই মন্ত্র জপ করলে তাঁর বিশেষ আশীর্বাদ পাওয়া যায়।

২. সাড়েসাতির প্রভাব থেকে মুক্তির শনি মন্ত্র

শনির সাড়েসাতিতে ত্রস্ত থাকলে শনি জয়ন্তীতে এই মন্ত্র জপ করুন–

ওম ত্রয়ম্বকম যজামহে সুগন্ধিম পুষ্টিবর্ধনম।
উর্বারুকমিব বন্দনাৎ মৃত্যোর্মুক্ষীয় মামৃতাত।

ওম শন্নো দেবীরভিষ্টয় আপো ভবন্তু পীতয়ে। শংয়োরভিশ্রবন্তু নঃ। ওম শং শনৈশ্চরায় নমঃ।

ওম নীলাঞ্জনসমাভাসং রবিপুত্রং যমাগ্রজম্।
ছায়ামার্তণ্ডসম্ভূতং তং নমামি শনৈশ্চরম্।

৩. শনির বৈদিক মন্ত্র

ওম শন্নো দেবীরভিষ্টয় আপো ভবন্তু পীতয়ে।

৪. শনির একাক্ষরী মন্ত্র

ওম শং শনৈশ্চরায় নমঃ

৫. সুখ ও সাফল্য লাভের জন্য শনি মন্ত্র

অপরাধসহস্ত্রাণি ক্রিয়ন্তেহর্নিশং ময়া।
দাসোয়মিতি মাং মত্বা ক্ষমস্ব পরমেশ্বর।।

গতং পাপং গতং দুঃখং গতং দারিদ্রয় মেব চ।
আগতাঃ সুখ-সম্পত্তি পুণ্যৌহং তব দর্শনাৎ।।

৬. শনির বেদোক্ত মন্ত্র

ওম শমাগ্নভিঃ করচ্ছন্নঃ স্তপন্ত সূর্য শংবাতোবা ত্বরপা অপাস্নিধাঃ

৭. শনির পুরাণোক্ত মন্ত্র

সূর্যপুত্র দীর্ঘদেহী বিশালাক্ষঃ শিবপ্রিয়ঃ দ মন্দচার প্রসন্নাত্মা পীডাং হরতু মে শনিঃ

৮. শনির তন্ত্রোক্ত মন্ত্র

ওম প্রাং প্রীং প্রৌং সঃ শনৈশ্চরায় নমঃ।

৯. শনি স্তোত্র

নমস্তে কোণসংস্থাচং পিঙ্গলায় নমো এক স্তুতে
নমস্তে বভ্রূরুপায় কৃষ্ণায় চ নমো এ স্তুতে
নমস্তে রৌদ্রদেহায় নমস্তে চান্তকায় চ
নমস্তে যমসংজ্ঞায় শনৈশ্চর নমো এ স্তুতে
প্রসাদ কুরু দেবেশ দিনস্য প্রণতস্য চ
কোষস্থহ্ম পিঙ্গলো বভ্রূকৃষ্ণৌ রৌদোএ ন্তকো যমঃ
সৌরী শনৈশ্চরো মন্দঃ পিপ্লদেন সংস্তুতঃ
এতানি দশা নামামী প্রাতরুত্থায় এ পঠেৎ
শনৈশ্চরাকৃতা পীডা ন কদচিৎ ভবিষ্যতি

শনি মন্ত্র জপ করার নিয়ম

শনি জয়ন্তীর দিনে সূর্যোদয়ের আগে উঠে স্নান করে ব্রত ও পূজার্চনার সংকল্প গ্রহণ করুন। তার পর শনি মন্দিরে পুজো দিন। শনিকে কালো তিল, সর্ষের তেল নিবেদন করতে ভুলবেন না। এর পর কালো তুলসীর মালা নিয়ে মনস্কামনা অনুযায়ী শনি মন্ত্র জপ করুন।

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *