www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

February 28, 2024 10:06 pm
মা ছিন্নমস্তা

এক হাতে নিজেরই কাটা মুণ্ডু, অপর হাতে কাতরি। কাটা গলা থেকে ফিনকি দিয়ে উঠেছে তিনটি রক্তের ধারা। দেবী নিজের ছিন্ন মুণ্ডকে রক্তপান করাচ্ছেন। রক্তপান করছেন, দেবীর দুই সখিও। আর দুই পায়ে দলছেন সংগমরত এই যুগলকে। এই রূপ আমাদের সকলেরই চেনা। হ্যাঁ, ইনিই দেবী ছিন্নমস্তা বা প্রচণ্ডচণ্ডিকা। দশমহাবিদ্যার অন্যতমা।

দশ মহাবিদ্যা। এই দশ মহাবিদ্যায়র ষষ্ঠ দেবী হলেন মা ছিন্নমস্তা রাহুর অধিষ্ঠাত্রী দেবী তিনি। হিন্দু দেবমণ্ডলীতে নগ্ন ও কবন্ধাকার দেবীরা ছিলেন যৌনশক্তির প্রতীক। তাঁদের যৌনাঙ্গের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণের জন্যই নাকি তাঁদের কবন্ধাকার কল্পনা করা হত !

এক হাতে নিজেরই কাটা মুণ্ডু, অপর হাতে কাতরি। কাটা গলা থেকে ফিনকি দিয়ে উঠেছে তিনটি রক্তের ধারা। দেবী নিজের ছিন্ন মুণ্ডকে রক্তপান করাচ্ছেন। রক্তপান করছেন, দেবীর দুই সখিও। আর দুই পায়ে দলছেন সংগমরত এই যুগলকে। এই রূপ আমাদের সকলেরই চেনা। হ্যাঁ, ইনিই দেবী ছিন্নমস্তা বা প্রচণ্ডচণ্ডিকা। দশমহাবিদ্যার অন্যতমা।

কিন্তু কে এই দেবী ছিন্নমস্তা? কেনই বা হিন্দুরা এমন উগ্রমূর্তি এক দেবীকে মাতৃজ্ঞানে পূজা করেন?কারণ, এই দেবী ছিন্নমস্তা আত্মবলিদান ও কুণ্ডলিনী শক্তির জাগরণের প্রতীক। অন্যদিকে তিনি একাধারে যৌনশক্তি ও যৌনসংযমের প্রতীক। আবার অপর এক দিক থেকে দেখলে, তিনি জগজ্জননীর জীবনদাত্রী ও জীবনহন্তী-এই দুই পরস্পরবিরোধী সত্ত্বার যুগলমূর্তি। বর্তমান নিবন্ধে তন্ত্র, পুরাণ ও আধুনিক গবেষকদের মতামত ঘেঁটে দেখব, ছিন্নমস্তার মূর্তিতে মাতৃসত্ত্বা, আত্মবিধ্বংসী ক্রোধ ও কামলালসার দমন-এই তিনটি আপাতবিচ্ছিন্ন ভাবধারা কেমন সুচারুভাবে গ্রথিত হয়েছে একটি মালায়।

শ্রীছিন্নমস্তাষ্টোত্তরশতনামস্তোত্রম্

শ্রীপার্বত্যুবাচ —

নাম্নাং সহস্রমং পরমং ছিন্নমস্তা-প্রিয়ং শুভম্ ।
কথিতং ভবতা শম্ভো সদ্যঃ শত্রু-নিকৃন্তনম্ ॥ ১ ॥

পুনঃ পৃচ্ছাম্যহং দেব কৃপাং কুরু মমোপরি ।
সহস্র-নাম-পাঠে চ অশক্তো য়ঃ পুমান্ ভবেত্ ॥ ২ ॥

তেন কিং পঠ্যতে নাথ তন্মে ব্রূহি কৃপা-ময় ।

শ্রী সদাশিব উবাচ –

অষ্টোত্তর-শতং নাম্নাং পঠ্যতে তেন সর্বদা ॥ ৩ ॥

সহস্র্-নাম-পাঠস্য ফলং প্রাপ্নোতি নিশ্চিতম্ ।
ওঁ অস্য শ্রীছিন্নমস্তাষ্টোত্তর-শত-নাম-স্তোত্রস্য সদাশিব
ঋষিরনুষ্টুপ্ ছন্দঃ শ্রীছিন্নমস্তা দেবতা
মম-সকল-সিদ্ধি-প্রাপ্তয়ে জপে বিনিয়োগঃ ॥

ওঁ ছিন্নমস্তা মহাবিদ্যা মহাভীমা মহোদরী ।
চণ্ডেশ্বরী চণ্ড-মাতা চণ্ড-মুণ্ড্-প্রভঞ্জিনী ॥ ৪ ॥

মহাচণ্ডা চণ্ড-রূপা চণ্ডিকা চণ্ড-খণ্ডিনী ।
ক্রোধিনী ক্রোধ-জননী ক্রোধ-রূপা কুহূ কলা ॥ ৫ ॥

কোপাতুরা কোপয়ুতা জোপ-সংহার-কারিণী ।
বজ্র-বৈরোচনী বজ্রা বজ্র-কল্পা চ ডাকিনী ॥ ৬ ॥

ডাকিনী কর্ম-নিরতা ডাকিনী কর্ম-পূজিতা ।
ডাকিনী সঙ্গ-নিরতা ডাকিনী প্রেম-পূরিতা ॥ ৭ ॥

খট্বাঙ্গ-ধারিণী খর্বা খড্গ-খপ্পর-ধারিণী ।
প্রেতাসনা প্রেত-য়ুতা প্রেত-সঙ্গ-বিহারিণী ॥ ৮ ॥

ছিন্ন-মুণ্ড-ধরা ছিন্ন-চণ্ড-বিদ্যা চ চিত্রিণী ।
ঘোর-রূপা ঘোর-দৃষ্টর্ঘোর-রাবা ঘনোবরী ॥ ৯ ॥

য়োগিনী য়োগ-নিরতা জপ-য়জ্ঞ-পরায়ণা ।
য়োনি-চক্র-ময়ী য়োনির্যোনি-চক্র-প্রবর্তিনী ॥ ১০ ॥

য়োনি-মুদ্রা-য়োনি-গম্যা য়োনি-য়ন্ত্র-নিবাসিনী ।
য়ন্ত্র-রূপা য়ন্ত্র-ময়ী য়ন্ত্রেশী য়ন্ত্র-পূজিতা ॥ ১১ ॥

কীর্ত্যা কর্পাদনী কালী কঙ্কালী কল-কারিণী ।
আরক্তা রক্ত-নয়না রক্ত-পান-পরায়ণা ॥ ১২ ॥

ভবানী ভূতিদা ভূতির্ভূতি-দাত্রী চ ভৈরবী ।
ভৈরবাচার-নিরতা ভূত-ভৈরব-সেবিতা ॥ ১৩ ॥

ভীমা ভীমেশ্বরী দেবী ভীম-নাদ-পরায়ণা ।
ভবারাধ্যা ভব-নুতা ভব-সাগর-তারিণী ॥ ১৪ ॥

ভদ্র-কালী ভদ্র-তনুর্ভদ্র-রূপা চ ভদ্রিকা ।
ভদ্র-রূপা মহা-ভদ্রা সুভদ্রা ভদ্রপালিনী ॥ ১৫ ॥

সুভব্যা ভব্য-বদনা সুমুখী সিদ্ধ-সেবিতা ।
সিদ্ধিদা সিদ্ধি-নিবহা সিদ্ধাসিদ্ধ-নিষেবিতা ॥ ১৬ ॥

শুভদা শুভফ़্গা শুদ্ধা শুদ্ধ-সত্বা-শুভাবহা ।
শ্রেষ্ঠা দৃষ্ঠি-ময়ী দেবী দৃষ্ঠি-সংহার-কারিণী ॥ ১৭ ॥

শর্বাণী সর্বগা সর্বা সর্ব-মঙ্গল-কারিণী ।
শিবা শান্তা শান্তি-রূপা মৃডানী মদানতুরা ॥ ১৮ ॥

ইতি তে কথিতং দেবি স্তোত্রং পরম-দুর্লভমং ।
গুহ্যাদ্-গুহ্য-তরং গোপ্যং গোপনিয়ং প্রয়ত্নতঃ ॥ ১৯ ॥

কিমত্র বহুনোক্তেন ত্বদগ্রং প্রাণ-বল্লভে ।
মারণং মোহনং দেবি হ্যুচ্চাটনমতঃ পরমং ॥ ২০ ॥

স্তম্ভনাদিক-কর্মাণি ঋদ্ধয়ঃ সিদ্ধয়োঽপি চ ।
ত্রিকাল-পঠনাদস্য সর্বে সিধ্যন্ত্যসংশয়ঃ ॥ ২১ ॥

মহোত্তমং স্তোত্রমিদং বরাননে ময়েরিতং নিত্য মনন্য-বুদ্ধয়ঃ ।
পঠন্তি য়ে ভক্তি-য়ুতা নরোত্তমা ভবেন্ন তেষাং রিপুভিঃ পরাজয়ঃ ॥ ২২ ॥

॥ ইতি শ্রীছিন্নমস্তাষ্টোত্তরশতনাম স্তোত্রম্ ॥

 

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *