www.machinnamasta.in

ওঁ শ্রীং হ্রীং ক্লী গং গণপতয়ে বর বরদ সর্বজনস্ময়ী বশমানয় ঠঃ ঠঃ

July 19, 2024 9:40 pm

শাশ্বতী চ্যাটার্জি::

সম্প্রতি জম্মু-শ্রীনগর হাইওয়ের নির্মীয়মাণ টানেল রামবাণের একটি অংশ আচমকা ভেঙে পড়েছিল। টানেলের একাংশ ভেঙে পড়ার কারণ কী তা অনুসন্ধান করতে এবং এর জন্য কি প্রতিকারমূলক ব্যবস্থার দরকার তার জন্য কেন্দ্র ৩ জন বিশেষজ্ঞের একটি কমিটি গঠন করল।
কেন্দ্রের মালিকানাধীন ন্যাশনাল হাইওয়ে অথরিটি অফ ইন্ডিয়া ইতিমধ্যেই জরুরি পরিস্থিতি সামাল দিতে আগেই কাজ শুরু করেছিল এবং একটি অফিসিয়াল বিবৃতিতে বলা হয়েছিল যে ভবিষ্যতে এই ধরনের ঘটনা এড়াতে সব ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। এনএইচএআই কর্তৃপক্ষই এবার এই প্রসঙ্গে জানিয়েছে যে , “কেন্দ্রীয় সরকার ৩ জন বিশেষজ্ঞের একটি কমিটি গঠন করেছে যারা ইতিমধ্যেই এই ঘটনার কারণ এবং এর প্রতিকারমূলক ব্যবস্থা কী নেওয়া যেতে পারে তদন্ত করতে সাইটে চলে গিয়েছেন। কমিটির রিপোর্টের ভিত্তিতে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়া হবে,”।
সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক মন্ত্রকের অফিস নির্দেশ অনুসারে, আইআইটি দিল্লির অধ্যাপক জেটি সাহু কমিটির চেয়ারম্যান হবেন এবং এটি ১০ ​​দিনের মধ্যে মন্ত্রকের কাছে তাঁদের রিপোর্ট জমা দেবে। সরকারী বিবৃতি অনুসারে, রামবান বানিহাল বিভাগের ডিগডোল এবং খুনি নালার মধ্যে প্রসারিত অংশটি বেশ ভঙ্গুর। মাটির অবস্থাও ভালো নয়। ঘন ঘন ভূমিধস এবং পাথরের আঘাতের জেরে এই জায়গা বেশ ঝুঁকিপূর্ণ। কৌশলগত গুরুত্ব বিবেচনা করে এবং পাহাড়ের ঢালের স্থিতিশীলতা মূল্যায়ন করার পরে, রামবান-বানিহাল বিভাগে ৩টি প্যাকেজের অধীনে টানেল, ভায়াডাক্টের প্রস্তাব করা হয়েছে।
বিবৃতিতে বলা হয়েছে , “১৯.০৫.২০২২ তারিখে প্রায় রাত সাড়ে ১০টা থেকে ১১টা পর্যন্ত ল্যান্ড স্লাইড হয় ওই অঞ্চলে এবং পাথর গড়িয়ে পড়তে শুরু করে। তখন খুনি নালায় অডিটের পোর্টাল সাপোর্ট ইনস্টলেশনের কাজ চালানো হচ্ছিল। শ্রমিকদের সরিয়ে নেওয়ার আগেই, হঠাৎ বিশাল পাথর সেখানে এসে পড়ে। ফলে ১২ জন শ্রমিক সেখানে আটকা পড়ে যায়”।
সিনিয়র ন্যাশনাল হাইওয়ে অথরিটি অফ ইন্ডিয়ার অফিসাররা খবর পেয়েই দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে যান এবং এসডিআরএফ, এনডিআরএফ, জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশ উদ্ধার কাজ শুরু করে। দুই কর্মীকে অবিলম্বে উদ্ধার করেই হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং তাদের সব ধরনের চিকিৎসা দ্রুত শুরু করা হয়। তবে বাকি ১০ জনকে বাঁচানো যায়নি। শনিবার সন্ধ্যায় আটকে পড়া ওই ১০ শ্রমিকের লাশ উদ্ধার করা হয়। যাদের মারা গিয়েছেন তাদের পরিবারকে ইপিসি ঠিকাদার দ্বারা কর্মীর ক্ষতিপূরণ এবং অতিরিক্ত ২ লক্ষ টাকা দেওয়া হচ্ছে যার পরিমাণ কমপক্ষে ১৫ লক্ষ টাকা।
আহতদেরও পর্যাপ্ত ক্ষতিপূরণ দেওয়া হচ্ছে। বিবৃতিতে যোগ করা হয়েছে যে স্বাভাবিক কারণেই ঘটনাটি ঘটেছে না কি অন্য কোনও কারণ তা প্রাথমিক ভাবে নির্ধারণ করা যায়নি।
জম্মু-শ্রীনগর হাইওয়েতে ডিগডোল থেকে পান্থিয়াল পর্যন্ত ৪-লেনের টুইন টিউব টানেলের কাজ প্যাটেল ইঞ্জিনিয়ারিং লিমিটেডের সঙ্গে সিগাল ইন্ডিয়া লিমিটেডকে করতে দেওয়া হয়েছিল। নির্মাণ কাজ পয়লা ফেব্রুয়ারি, ২০২২ এ শুরু হয়। কাজ চলার মাঝেই এই দুর্ঘটনা ঘটে।

administrator

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *